ঢাকা, শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭, ১ পৌষ ১৪২৪ অাপডেট : ৩১ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ০৭ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৫:১১

প্রিন্ট

বাড়ি আসার পথে গার্মেন্টস কর্মীকে ধর্ষণের পর হত্যা

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি

কুড়িগ্রামের রাজীবপুর উপজেলায় সাবিনা ইয়াসমিন (২৭) নামের এক গার্মেন্টস কর্মীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণের পর হত্যা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বুধবার রাতে লাশটি স্থানীয় নয়ারচরের মধ্যের চর এলাকা থেকে উদ্ধার করে কুড়িগ্রাম মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। এ ঘটনায় ঢুষমারা থানায় একটি হত্যা মামলা হয়েছে।

নিহত গার্মেন্টস কর্মী রাজীবপুর উপজেলার সন্যাসী কান্দি চরের দিনমজুর মোসলেম উদ্দিন ওরফে শোটকা মন্ডলের মেয়ে বলে জানা গেছে।

লাশের সুরতহাল রির্পোটে পুলিশ জানায়, নিহতের পরনে কোনো জামাকাপড় ছিল না। শুধু বোরকা দ্বারা তার শরীর ঢাকা ছিল।

নিহতের বাবা মোসলেম উদ্দিন বলেন, আমার মেয়ে সাবিনা ইয়াসমিনের বিয়ে হয় পার্শ্ববর্তী দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার সানন্দ বাড়ির মধ্যপাড়া গ্রামে। যৌতুক দিতে না পারায় আমার মেয়েকে তার জামাতা বাদশা মন্ডল বাড়ি থেকে বের করে দেয়। তারপর থেকেই সে ঢাকাতে গার্মেন্টসে চাকরি করত। কয়েক দিন আগে মেয়ে বাড়ি আসবে বলে তাকে ফোন করেছিল। কিন্তু সে জীবিত অবস্থায় বাড়ি না আসলেও বুধবার মধ্যের চরে তার লাশ দেখলাম।

এ ব্যাপারে ঢুষমারা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাংবাদিকদের জানান, গার্মেন্টস কর্মী সাবিনাকে কে বা কারা ধর্ষণ করে হত্যা করেছে এর সঠিক তথ্য এখনও পাওয়া যায়নি।

তবে নিহতের পরিবারের অভিযোগ, সে ঢাকা থেকে বাড়ি আসার পথে নয়াচরের মধ্য চরের কাঁশবন পার হওয়ার সময় তুলে নিয়ে ধর্ষণ করার পর তাকে হত্যা করা হয়েছে।

নিহতের লাশের ময়নাতদন্তের পর এ ঘটনার তদন্ত সাপেক্ষে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

/এসকে/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত