ঢাকা, শনিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৮, ৫ কার্তিক ১৪২৫ অাপডেট : ৫ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২২:১৬

প্রিন্ট

ভ্যালেন্টাইন্স ডে’র আবেশ সংসদেও

ভ্যালেন্টাইন্স ডে’র আবেশ সংসদেও
নিজস্ব প্রতিবেদক

ভালেন্টাইন্স ডে’ উপলক্ষে তরুণ-তরুণীদের উৎসবের রেশ ছড়িয়েছে জাতীয় সংসদেও; ভালোবাসা নিয়ে হাস্যরস করেছেন সংসদ সদস্যরা, একে অপরকে টিপ্পনীও কেটেছেন।

জাতীয় পার্টির এক সদস্য শুধু নারী সদস্যদের ‘ভালোবাসা দিবসের’ শুভেচ্ছা জানানোয় তার দলের চেয়ারম্যানের ভালোবাসা নিয়ে টিপ্পনী কেটেছেন সরকারি দলের এক সাংসদ।

এ নিয়ে স্পিকারের আসনে থাকা ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়া বলেছেন, জাতীয় পার্টির সদস্য পুরুষ সদস্যদের শুভেচ্ছা জানাতে কৃপণতা করছেন।

বুধবার জাতীয় সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনার শুরুতে ভালোবাসার সংজ্ঞা ও সেকাল-একাল নিয়ে কথা বলেন জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য ফখরুল ইমাম।

তিনি বলেন, “আজকে বিশেষ দিন। আজ বিশ্ব ভালোবাসা দিবস। সময়ের পরিবর্তনে ভালোবাসায় ডিজিটাল প্রযুক্তির ছোঁয়া লেগেছে। ভালোবাসার সংজ্ঞা নিয়ে কবিরাও হতভম্ব ও দ্বিধাবিভক্ত।”

এ সময় সংসদ অধিবেশনে সভাপতিত্ব করছিলেন স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী।

তিনি বলেন, “ভালোবাসা শব্দটি বিশাল। যুগযুগ ধরে কোটি কোটি নর-নারী শব্দটির বিশালতায় হারিয়ে যাচ্ছে। মানুষ যতই ভালোবাসা নামক শব্দটিকে কাছে পেতে চাইছে ততই তা নতুনভাবে ধরা দিচ্ছে।

“ভালোবাসার জন্য কেউ নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছে। কারও কারও জীবনের মোড় ঘুরে যাচ্ছে। কেউ সংসার ত্যাগী হচ্ছে। কেউ আবার এর জন্য নিজের প্রিয় জীবনটিও ত্যাগ করতে পিছপা হচ্ছে না। ভালোবাসার এত ত্যাগের মাঝেও তার অধরা রূপটি বজায় রেখেছে। কিন্তু সময়ের সঙ্গে সঙ্গে ভালোবাসার ধরণে পরিবর্তন এসেছে।”

ফখরুল ইমাম তার বক্তব্যের শেষ পর্যায়ে সংসদ সদস্য বিশেষ করে নারী সদস্যদের ভালোবাসা দিবসের শুভেচ্ছা জানান।

নারী সদস্যদের দিকে তাকিয়ে তিনি বলেন, “আমার বাঁ দিকে বসে থাকা বোনদের আজকে ভালোবাসা দিবসে ভালোবাসা জানাতে চাচ্ছি। তাদের ছাড়া এই সংসদের কোরাম হয় না।”

এ সময় পুরুষ সংসদ সদস্যরা আপত্তি তুললে তিনি তাদেরও ভালোবাসা দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, “বামের বোনদের জন্য রজনীগন্ধার শুভেচ্ছা। আর ভাইদের জানাচ্ছি, গোলাপ ফুলের শুভেচ্ছা।”

পরে সরকার দলীয় সাংসদ মাহবুব-উল-আলম হানিফ বক্তব্য দিতে এসে টিপ্পনী কাটেন ফখরুল ইমামকে।

তিনি বলেন, “সবাইকে ভালোবাসা দিসের শুভেচ্ছা। জাতীয় পার্টির সদস্য শুধু বোনদের প্রতি ভালোবাসার শুভেচ্ছা জানালেন-এটাই স্বাভাবিক। কারণ জাপার চেয়ারম্যান তো শুধু নারী সদস্যদেরই সব সময় ভালোবাসা দিবসের শুভেচ্ছা জানান।”

এ সময় অধিবেশনজুড়ে হাসির রোল পড়ে।

তখন স্পিকারের দায়িত্বে থাকা ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়া বলেন, “ভালোবাসা দিবসে হাস্যরসের জন্য স্বাগত জানাচ্ছি। তবে উনি (জাপা দলীয় সাংসদ) আমাদের প্রতি মনে হয় কৃপণতা দেখিয়েছেন।”

বিএম মোজাম্মেল হক, নাহিম রাজ্জাক, নুরুল ইসলাম সুজন, গোলাম রব্বানী প্রমুখ রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নেন। সূত্র: বিডিনিউজ।

এস/এ/জে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত