ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫ অাপডেট : ১ ঘন্টা আগে English

প্রকাশ : ১৯ আগস্ট ২০১৮, ১০:৪৯

প্রিন্ট

ঈদের আগে বৃষ্টি, স্বস্তি না ভোগান্তি

ঈদের আগে বৃষ্টি, স্বস্তি না ভোগান্তি
নিজস্ব প্রতিবেদক

গত কয়েক দিনের ভ্যাপসা গরমের পর আজ রোববার সকালে স্বস্তির বৃষ্টি নেমেছে রাজধানীতে। সকাল পাঁচটার দিকে মেঘের গর্জনের সাথে হঠাৎ করেই মুষুলধারে নামে বৃষ্টি। তিন ঘণ্টার টানা এই বৃষ্টি ঈদে ঘরমুখো মানুষের জন্য যেমন এক দিকে শান্তির অন্যদিকে ভোগান্তির।

ভাদ্রমাসে বর্ষার আগমনে ঈদের যাত্রাপথে গরমের কষ্ট কমলেও সকালে যেসব যাত্রীরা ছিলেন পথে তাদের জন্য বৃষ্টি ছিল ভোগান্তির। আবার ঈদের ছুটি এখন শুরু না হওয়ায় কর্মজীবী মানুষদের কাছে এই হঠাৎ বৃষ্টি ছিল কিছুটা ভোগান্তির।

ঈদ করতে বাড়ির উদ্দেশ্যে যাত্রা করা আফরোজা আক্তার জানালেন, গত কয়েক দিন বেশ গরম থাকায় বাড়ি যাওয়া নিয়ে কিছুটা চিন্তায় ছিলাম। কিন্তু সকালের বৃষ্টি যাত্রাপথে কিছুটা হলেও শান্তি দেবে।

আবার কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে এখন ট্রাক ভরে রাজধানীতে পশু আনছে ব্যবসায়ীরা। সকালে পশুর ট্রাকসহ বিপাকে পড়তে হয় ব্যবসায়ীদের। অন্যদিকে হাটগুলোর কাছের প্রায় সব রাস্তাতেই বৃষ্টির পানি আর পশুর মলমূত্র একসঙ্গে মিশে কাদামাটির সৃষ্টি হয়েছে। যার কারণে গরু ভর্তি গাড়ির চলাচলে হচ্ছে সমস্যা।

বৃষ্টির পাশাপাশি বাতাস হওয়ায় বৃষ্টিরোধক অনেক ছাউনি উড়ে গেছে। আবার হাটগুলোর অনেক স্থানে বৃষ্টিরোধক কোনও ব্যবস্থা না থাকায় পশুর স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিয়েও চিন্তায় আছেন গরু ব্যবসায়ীরা।

এদিকে বৃষ্টি হওয়ায় ক্রেতা কমে যাওয়ার আশঙ্খা করছেন অনেক ব্যবসায়ী। আফতাব নগর হাটের ব্যবসায়ী আমজাদ হোসেন বলেন, বৃষ্টি হলে আমরা গরু নিয়ে যেমন বিপদে পড়ি তেমনি ক্রেতারাও ভোগান্তির কথা চিন্তা করে হাটে আসতে চান না।

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন এলাকায় একটি স্থায়ী পশুর হাট ও অস্থায়ীপশুর হাট বসেছে ২৫টি। ব্যবসায়ীরা বলছেন এর মধ্যে কোনটিতেই বৃষ্টি থেকে পশু রক্ষার তেমন কোন সুব্যবস্থা নেই।

আরএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত