ঢাকা, বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫ অাপডেট : ১ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ৩১ আগস্ট ২০১৮, ১৬:০৩

প্রিন্ট

ফল আর ফেনসিডিল নিয়ে শ্বশুরবাড়ি যাচ্ছিলেন তিনি!

ফল আর ফেনসিডিল নিয়ে শ্বশুরবাড়ি যাচ্ছিলেন তিনি!
নড়াইল প্রতিনিধি

নড়াইলে শ্বশুর বাড়ি যাওয়ার ছদ্মবেশে ফলের সঙ্গে ফেনসিডিল পাচারের সময় ইয়াকুব মোল্যা ওরফে বাবুল (২৮) নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ। এসময় তার কাছ থেকে ৭০ পিস ফেনসিডিল, দুই কেজি আপেল ও দুই কেজি বেদেনা ফল উদ্ধার করা হয়। শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে নড়াইল-যশোর সড়কের সীতারামপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে এসব ফেন্সিডিল উদ্ধার করা হয়েছে।

নড়াইল ডিবি পুলিশের ওসি মো. আশিকুর রহমান জানান, নড়াইল-যশোর সড়কে নিয়মিত চেকপোস্টের অংশ হিসেবে শুক্রবার সীতারামপুর ব্রিজ এলাকায় একটি মোটরসাইকেলের আরোহীকে তল্লাশি করা হয়। তল্লাশিকালে ওই মোটরসাইকেল রেখে চালক বাবুল পালিয়ে যাবার চেষ্টা করে।

তখন পুলিশ দৌড়ে গিয়ে বাবুলকে আটক করে। মোটরসাইকেলে একটি ব্যাগে আপেল ও বেদেনা এবং অপর একটি ব্যাগ থেকে ৭০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়। এসময় তার মোটরসাইকেলটিও জব্দ করা হয়েছে।

আটক ইয়াকুব মোল্যা ওরফে বাবুল (২৮) নড়াইল সদর উপজেলার চন্ডিবরপরপুর ইউনিয়নের ফেদী গ্রামের দাউদ মোল্যার ছেলে। বর্তমানে তিনি সদর উপজেলার তুলারামপুর ইউনিয়নের পেড়লী মিনা বাজার এলাকায় একটি বাড়িতে ভাড়া থাকে। এর আগেও তিনি পুলিশের হাতে ধরা পড়েছেন।

আটক বাবুল বলেন, বসুন্দিয়া মোড় থেকে ফেন্সিডিল নিয়ে লোহাগড়ায় নিয়ে যাচ্ছিলেন। তিনি ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালান বলে দাবি করেন।

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন বাংলাদেশ জার্নালকে জানান, আটক বাবুল পুলিশের চোখ ফাঁকি দেওয়ার জন্য ফল কিনে শ্বশুর বাড়ি যাবার ছদ্মবেশে ফেনসিডিল পাচার করছিলেন। তার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হয়েছে। জেলায় মাদক ও অপরাধ নিয়ন্ত্রণে পুলিশের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত