ঢাকা, বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ৩০ কার্তিক ১৪২৫ অাপডেট : ১৪ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৯:৫৬

প্রিন্ট

তেল না পেয়ে পাম্প বন্ধ করে দিলেন আওয়ামী লীগ নেতা!

তেল না পেয়ে পাম্প বন্ধ করে দিলেন আওয়ামী লীগ নেতা!
রাজশাহী প্রতিনিধি

হেলমেট না থাকায় রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের মোটরসাইকেলে তেল দেয়নি পাম্প। এ ঘটনায় ওই আওয়ামী লীগ নেতা ক্ষিপ্ত হয়ে জোরপূর্বক ওই পাম্পের তেল বিক্রি বন্ধ রেখেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলা সদরের পশ্চিম পাশে পুঠিয়া ফিলিং স্টেশনে এ ঘটনা ঘটে।

তেল পাম্পের ম্যানেজার অলক কুমার সরকার জানান, বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মোটরসাইকেলে তেল নিতে আসেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পালোপাড়া হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক আব্দুল মালেক। সে সময় তার কাছে হেলমেট না থাকায় তেল দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন পাম্পের বিক্রয়কর্মী। এ ঘটনায় তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে চলে যান।

ম্যানেজার আরও জানান, কিছুক্ষণ পর আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল মালেক ফিরে এসে নিজে দাঁড়িয়ে থেকে পাম্পের কর্মচারীদের দিয়ে দড়ি বেঁধে পাম্প অবরোধ করে চলে যান। যাওয়ার আগে তেল বিক্রি করলে পাম্প জ্বালিয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে গেছেন। এরপর থেকে পাম্পে তেল বিক্রি বন্ধ রাখা হয়েছে। বিষয়টি ওই প্রতিষ্ঠানের মালিক, থানা ও উপজেলা প্রশাসনকে অবহিত করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি পুলিশ প্রশাসন হেলমেটবিহীন কোনো মোটরসাইকেলে তেল দেয়ায় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। এ বিষয়ে ওই পাম্পের সামনে একটি ব্যানারও ঝুলানো রয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী আবুল হোসেন ও আরিফুল হক বলেন, বেলা আনুমানিক ১১টার দিকে হেলমেটবিহীন অবস্থায় তেল না দেয়াকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেকের সঙ্গে পাম্প কর্মচারীদের কথা-কাটাকাটি হয়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে তেল বিক্রি বন্ধ রাখা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা আরো জানান, আবদুল মালেকের লোকজন পাম্পটির ওপর নজরদারি করছেন। হঠাৎ করে পাম্পে তেল বিক্রি বন্ধ থাকায় শত শত যানবাহন চালক তেল নিতে এসে হয়রানির শিকার হচ্ছে।

এ বিষয়ে জানার জন্য অভিযুক্ত আওয়ামী লীগ নেতা আবদুল মালেকের মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

পুঠিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রাকিবুল হাসান বলেন, হেলমেটবিহীন মোটরসাইকেলে তেল না দেয়ার বিষয় নিয়ে উভয়পক্ষের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে পাম্পে তেল দেয়া বন্ধ রয়েছে, এমন খবর পাওয়া গেছে। সন্ধ্যার পর উভয়পক্ষের লোকজন নিয়ে বিষয়টি সুরাহা করা হবে।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসএস

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত