ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৮, ২৯ কার্তিক ১৪২৫ অাপডেট : ১ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৫ অক্টোবর ২০১৮, ১৯:৩৬

প্রিন্ট

ফোন করলেই চা হাজির

ফোন করলেই চা হাজির
সিলেট প্রতিনিধি

চায়ের তেষ্টা দূর করার সবচেয়ে সহজ উপায় হলো ঘরে চা তৈরি করে পান করা বা দোকানে যাওয়া। কিন্তু সিলেটের বিশ্বনাথ শহরবাসীর জন্য ব্যাপারটা আরেকটু সহজ। চায়ে গলা ভেজাতে চাইলে দোকানে যাওয়ার দরকার নেই, ফোন করলে চা নিজেই হাজির হচ্ছে। অভিনব এই পদ্ধতিতে চা বিক্রি করে চার সদস্য বিশিষ্ট সংসার চালাচ্ছেন উপজেলার পুরান বাজার এলাকার বাসিন্দা বিপুল চন্দ্র দাশ। এলাকায় সবাই তাকে বাবু বলে ডাকেন।

প্রতিদিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত ফেরি করে চা বিক্রি করেন ‘চা বাবু’। পুরান বাজারে ছোট একটি কক্ষ ভাড়া নিয়ে সেখানে চা তৈরি করেন তিনি। আর তার মোবাইল ফোনে কল আসা মাত্রই চা নিয়ে হাজির হন ক্রেতাদের পাশে।

আগে পত্রিকা বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করতেন বিপুল। প্রায় ১০ বছর আগে সেই পেশা ছেড়ে দিয়ে চা বিক্রি শুরু করেন। পুরান বাজার এলাকার বিভিন্ন ব্যবসা-প্রতিষ্ঠানে ফেরি করে চা বিক্রি করেন তিনি। এতে প্রতিদিন তার আয় হয় প্রায় ৬-৭শ টাকা। প্রতি কাপ চা পাঁচ টাকা করে বিক্রি করেন। তবে তার দোকানে বসে ক্রেতাদের চা খাওয়ার কোনো ব্যবস্থা নেই। চা বিক্রয় চলে ফোন কলে। এক দোকান থেকে অন্য দোকানে পায়ে হেঁটে চা দিয়ে আসেন তিনি।

সরেজমিন দেখা যায়, একটি প্লাস্টিকের ট্রেতে করে দুটি কাপ নিয়ে থানার সামনে দিয়ে যাচ্ছিলেন বিপুল। গন্তব্য থানার পাশে অবস্থিত সাদ্দাম ডেকোরেটার্স। সেখানে চা দেয়ার সময়ই মোবাইল ফোনে কল আসে। অন্য আরেক ব্যবসায়ী পাঁচ কাপ চা নিয়ে যাওয়ার কথা বলেন। সাথে সাথেই নিজের দোকানে ফিরে ফোন আসা গন্তব্যে চা দিতে ছুটে যান বিপুল। এভাবেই ফোন কলের মাধ্যমে চা বিক্রি করে আসছেন তিনি।

বিপুল বলেন, দীর্ঘ ১০ বছর ধরে চা বিক্রি করে আসছি। প্রতিদিন ১২-১৫শ টাকার চা বিক্রি হয়। এর প্রায় অর্ধেক লাভ থাকে। ওই টাকা দিয়েই চলে আমার সংসার। ফেরি করে চা বিক্রি করি। দোকানে বসে চা খাওয়ার সুযোগ নেই। বেশিরভাগ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালিক-কর্মীদের কাছে আমার মোবাইল নম্বর রয়েছে। যখন চায়ের প্রয়োজন তখনই তারা ফোনে অর্ডার করেন।

তিনি নিজে একাই চা তৈরি এবং তা ফেরি করে থাকেন।

বিপুলের এই ব্যবসার ধরন যে স্থানীয়ভাবে অনেক জনপ্রিয় তা বুঝা গেল পুরান বাজারের ব্যবসায়ী আখতার আহমদের কথায়। তিনি বলেন, বাবুকে মোবাইল ফোনে কল করলেই চা নিয়ে হাজির হন। তার চা খুবই ভালো। বাজারের অনেক ব্যবসায়ী তার চা খেতে পছন্দ করেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত