ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৮, ২৯ কার্তিক ১৪২৫ অাপডেট : ২ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৬ অক্টোবর ২০১৮, ১৮:২৩

প্রিন্ট

আওয়ামী লীগ নেতা প্রধান শিক্ষকের একি কাণ্ড!

আওয়ামী লীগ নেতা প্রধান শিক্ষকের একি কাণ্ড!
মাগুরা প্রতিনিধি

মাগুরা মহম্মদপুর উপজেলার বিনোদপুর বিকে মাধ্যমিক বিদ্যালয় চত্ত্বরের লক্ষাধিক টাকা দামের গাছ ও গাছের ডাল কোনো নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করেই বিক্রয় করে দিয়েছেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক।

মঙ্গলবার দুপুরে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, গাছ কাটার এই চিত্র। এসময় কর্তনকৃত বড় কয়েকটি মেহগনি গাছ ভ্যানে করে দ্রুত নিয়ে যেতে দেখা যায় ব্যাপারিদের।

স্থানীয়দের সাথে কথা বললে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন বলেন, স্কুলের প্রধান শিক্ষক আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতা হওয়ায় বিদ্যালয় পরিচালনার কোন নিয়ম কানুনের তোয়াক্কা করেন না। এবং দলীয় ক্ষমতার প্রভাব খাটিয়ে তিনি স্কুলের সৌন্দর্য বর্ধন ও ছায়াদানকারী এ সকল গাছ বিক্রি করেছেন।

দূর্গাপূজার ছুটির প্রথম দিনেই সুযোগ বুঝে কাঠ ব্যবসায়ীদের কাছে বিক্রি করে দিলেন এই গাছগুলো। এ ঘটনায় স্থানীয়দের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে।

বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সদস্য ইদ্রিস মিয়া বলেন, ‘কারো সাথে কোনো কথা না বলে প্রধান শিক্ষক গাছগুলো বিক্রি করেছেন।’ নাম প্রকাশ না করার শর্তে আর একজন সদস্য বলেন, ‘প্রধান শিক্ষক মহম্মদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হওয়ায় ভয়ে কেউ তার অপকর্মের প্রতিবাদ করতে পারে না।’

বিকে মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও মহম্মদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এসকে নুরুজ্জামানের নিকট গাছ কাটার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমি ব্যাপারিদের গাছের ডাল কাটার কথা বলেছি তবে গাছ কাটতে নয়।’

স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি অধ্যক্ষ এসএম খায়রুজ্জামান জানান, ‘ম্যানেজিং কমিটির নির্দেশ, রেজুলেশন এবং প্রশাসনিক অনুমতি ছাড়াই স্কুল ছুটির দিনে গাছ কেটে বিক্রয় করেছেন প্রধান শিক্ষক। আমি বিষয়টি শুনেছি তবে প্রধান শিক্ষককে গাছ বিক্রয়ের নির্দেশ দেয়নি।’

মহম্মদপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রিয়াংকা পাল জানান, ‘বিষয়টি আমার জানা নেই তবে এমন কিছু হলে আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

মাগুরার জেলা প্রশাসক মো: আলী আকবর জানান, ‘বিদ্যালয়ের গাছ বিক্রয়ের সত্যতা মিললে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

জেডআই

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত