ঢাকা, রবিবার, ২৭ মে ২০১৮, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ অাপডেট : ১ ঘন্টা আগে English

প্রকাশ : ০৮ মে ২০১৮, ২০:০২

প্রিন্ট

ফারমার্সের শেয়ার কেনার বাধা কাটলো রাষ্ট্রায়ত্ত চার ব্যাংকের

ফারমার্সের শেয়ার কেনার বাধা কাটলো রাষ্ট্রায়ত্ত চার ব্যাংকের
অনলাইন ডেস্ক

অনিয়ম-দুর্নীতির কারণে বিপর্যস্ত বেসরকারি ফারমার্স ব্যাংকের শেয়ার কেনার ক্ষেত্রে বড় বাধা দূর হলো রাষ্ট্রায়ত্ত সোনালী, জনতা, অগ্রণী ও রূপালী ব্যাংকের। ব্যাংকগুলোকে ‘ব্যাংক কোম্পানি আইন, ১৯৯১’ এর ১৪ক এবং ২৬ক ধারার বিধান পরিপালন থেকে সাধারণভাবে অব্যাহতি দিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির।

বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির তার ক্ষমতাবলে মঙ্গলবার দেওয়া এক আদেশে ব্যাংক কোম্পানি আইনের এই তিনটি ধারা পরিপালন থেকে ব্যাংক চারটিকে অব্যাহতি দিয়েছেন।

মঙ্গলবার (৮ মে) বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। এর ফলে ফারমার্স ব্যাংকের শেয়ার কেনার ক্ষেত্রে সরকারি ওই চার ব্যাংক এবং রাষ্ট্রায়ত্ত ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশের (আইসিবি) আর কোনও বাধা থাকল না।

বেসরকারি এই ব্যাংকটিকে বাঁচাতে ৭১৫ কোটি টাকার শেয়ার কিনবে রাষ্ট্রায়ত্ত আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো।

সংশ্লিষ্টরা জানান, সোনালী, জনতা, অগ্রণী এবং রূপালী ব্যাংকের প্রত্যেকে ১৬৫ কোটি টাকা করে ৬৬০ কোটি টাকার শেয়ার কিনবে।

বাকি ৫৫ কোটি টাকার শেয়ার কিনবে রাষ্ট্রায়ত্ত আর্থিক সংস্থা ইনভেস্টমেন্ট কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ (আইসিবি)।

গভর্নর ফজলে কবির স্বাক্ষরিত ওই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, ‘ব্যাংক কোম্পানি আইন, ১৯৯১ (১৯৯১ এর ১৪নং আইন) এর ১২১ ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে বাংলাদেশে কার্যরত সোনালী ব্যাংক লিমিটেড, জনতা ব্যাংক লিমিটেড, অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড ও রূপালী ব্যাংক লিমিটেডকে দি ফারমার্স ব্যাংক লিমিটেডের শেয়ার ক্রয় ও ধারণের ক্ষেত্রে ব্যাংক কোম্পানি আইন, ১৯৯১ এর ১৪ক এবং ২৬ক ধারার বিধান পরিপালন থেকে সাধারণভাবে অব্যাহতি প্রদান করা হলো।’

এতে আরও বলা হয়, ‘এছাড়াও একই আইনের ১২১ ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে সোনালী ব্যাংক লিমিটেড, জনতা ব্যাংক লিমিটেড, অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড, রূপালী ব্যাংক লিমিটেড এবং ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশ এর পক্ষে তাদের সিইও/ব্যবস্থাপনা পরিচালকদের দি ফারমার্স ব্যাংক লিমিটেডের পর্ষদে প্রতিনিধি পরিচালক নিযুক্তির ক্ষেত্রে ব্যাংক কোম্পানি আইন, ১৯৯১ এর ২৩ (১)(ক) ধারার বিধান পরিপালন থেকে সাধারণভাবে অব্যাহতি প্রদান করা হলো।’

গত কয়েক মাস ধরেই অর্থ সংকটে ডুবতে বসা ফারমার্স ব্যাংককে রক্ষার জন্য বিভিন্ন উপায় নিয়ে আলোচনা চলছিল। এর একটি হচ্ছে রাষ্ট্রায়ত্ত চার ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইসিবি থেকে ফারমার্সকে অর্থ দেওয়া। কিন্তু প্রতিষ্ঠানগুলো এর বিনিময়ে ফারমার্সের শেয়ার চেয়েছিল। এখন এক্ষেত্রে আইনি বাধা কেটে যাওয়ায় প্রতিষ্ঠানগুলো শেয়ার কিনতে পারবে; ডুবন্ত ফারমার্সও রক্ষা পাবে।

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত