ঢাকা, শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭, ১ পৌষ ১৪২৪ অাপডেট : ২৯ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ০৭ ডিসেম্বর ২০১৭, ১২:৫৬

প্রিন্ট

'ক্যাপিটাল মার্কেট এক্সপো - ২০১৭'

বিনিয়োগকারী-দর্শনার্থীদের পদচারণায় মুখর মেলা প্রাঙ্গণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

পুঁজিবাজারের ব্র্যান্ডিং এবং বাজার সম্পর্কে বিনিয়োগকারীদের স্বচ্ছ ধারণা দিতে রাজধানীতে শুরু হয়েছে বাংলাদেশ ক্যাপিটাল মার্কেট এক্সপো - ২০১৭। 

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় রাজধানীর সেগুনবাগিচায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা ভবনে এ মেলা শুরু হয়। মেলা উপলক্ষে সকাল থেকে বিনিয়োগকারীদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠছে মেলা প্রাঙ্গণ।

এক্সপোতে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি), স্টক এক্সচেঞ্জ, সিডিবিএল, শীর্ষ ব্রোকারহাউজ, মার্চেন্ট ব্যাংক, অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি, তালিকাভূক্ত কোম্পানিসহ প্রায় ৪০ টি স্টল তাদের সেবা-পণ্য প্রদর্শনের আয়োজন শুরু করেছে। শেয়ারবাজার মেলায় অংশ নেওয়া স্টলে ভিড় জমাচ্ছেন বিনিয়োগকারীরা।

তৃতীয়বারের মতো আয়োজিত ৩ দিনের এ মেলা প্রতিদিন সকাল ১০ থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত উম্মুক্ত থাকবে। এক্সপোতে প্রবেশের জন্য কোনো টিকেট লাগবে না। এছাড়া প্রবেশে কুপনের র‍্যফেল ড্রতে মোটরসাইকেল, মোবাইলসহ মূল্যবান সব পুরস্কার জেতার সুযোগ রয়েছে।

বৃহস্পতিবার মেলা প্রাঙ্গণ ঘুরে দেখা গেছে, সকাল থেকে বিনিয়োগকারী-দর্শনার্থীদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠছে মেলা প্রাঙ্গণ। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে বিনিয়োগকারী-দর্শনার্থীদের সমাগম। দর্শনার্থীরা স্টলগুলো ঘুরছেন আর বিভিন্ন পণ্য-সেবা সম্পর্কে নানা তথ্য সংগ্রহ করছেন। অনেকেই আবার নানা অফার পেয়ে পছন্দের সেবাটি গ্রহণ করছেন। বিনিয়োগকারী-দর্শনার্থীদের কাঙ্ক্ষিত সেবা দিতে স্টল কর্মীরাও ব্যস্ত।

মেলায় শেয়ারবাজার সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য গ্রহণ করতে এসেছেন এমন এক ব্যক্তা বলেন, শেয়ারবাজার সম্পর্কে অনেকেরই আইডিয়া নেই। এই মেলা বাজার সম্পর্কে পজিটেভি আইডিয়া দিতে বেশ কাজে লাগবে। শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করতে হলে বাজার সম্পর্কে বেশ ভালো ধারণ থাকতে হয়। বাজারে আমার বিনিয়োগ আছে। বিনিয়োগ থেকে ভালো লাভ পেতে বাজার সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণা পেতে আমি মেলায় এসেছি।

তিনি আরো বলেন, আমি প্রথম থেকেই এ মেলায় আসি। গতবারও আমি মেলায় এসেছিলাম। এবার মেলা থেকে আরো ভালো কিছু পাবো এই আশা থেকে এখানে এসেছি। এ রকম মেলার আয়োজন প্রতি ৬ মাস পর পর হলে আমাদের মতো সাধারণ বিনিয়োগকারীরা অনেক বেশি উপকৃত হবে।

মেলায় আসা অপর এক ব্যক্তি বলেন, চমৎকার একটি পরিবেশ মেলায় বিরাজ করছে। আমি গতবছরও মেলায় এসেছিলাম। মূলত মেলায় মোবাইলে শেয়ার কেনা-বেচার খুঁটিনাটি জানতে এসেছি। মোবাইল অ্যাপসে ট্রেড করার নিয়ম সম্পর্কে আমার ধারণা ছিল না। এখানে এসে মোবাইল অ্যাপসে ট্রেড করার সব নিয়ম অনেক ইজিভাবে শিখতে পেরেছি।

এ বিষয়ে ব্যাংক এশিয়া স্টলের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ সোয়েল রানা বলেন, সকাল থেকে দর্শনার্থীরা স্টলে আসছেন, তারা আমাদের বিভিন্ন সেবা সম্পর্কে জানছেন। বেলা বাড়ছে লোক সমাগমও বাড়ছে।

এদিকে এক্সপো উপলক্ষ্যে ৩ দিনই থাকবে নানা বিষয়ে সেমিনার। বৃস্পতিবার বিকালে থাকবে বিদ্যুৎ খাত নিয়ে বিশেষ আলোচনা। এতে তালিকাভুক্ত ৪ বিদ্যুৎ কোম্পানির প্রধান অর্থ কর্মকর্তা অংশ নেবেন। ৮ ডিসেম্বর শুক্রবার সকাল ১০.৩০ টায় অনুষ্ঠিত হবে বিনিয়োগের কলাকৌশল বিষয়ক আলোচনা। এতে ব্রোকার, মার্চেন্ট ব্যাংকার, অ্যাসেট ম্যানেজার, চার্টার্ড অ্যাকাউন্টেন্ট ও চার্টার্ড ফিন্যান্সিয়াল অ্যানালিস্টরা আলোচনায় অংশ নেবেন।

একই দিন বিকাল ৪ টায় অনুষ্ঠিত হবে এফআরসি ও পুঁজিবাজারঃ প্রত্যাশা ও চ্যালেঞ্জ শীর্ষক সেমিনার। এতে প্রধান অতিথি থাকবেন এফআরসির চেয়ারম্যান। এতে চার্টার্ড অ্যাকাউন্টেন্ট, কস্ট অ্যাকাউন্টেন্ট ও চার্টার্ড সেক্রেটারিরা অংশ নেবেন।

আগামী ৯ ডিসেম্বর শনিবার সকাল ১১টায় অনুষ্ঠিত হবে ক্যারিয়ার ইন ক্যাপিটাল মার্কেট শীর্ষক সেমিনার। এতে প্রধান অতিথি থাকবেন বিএসইসির সাবেক কমিশনার, বর্তমানে আইডিএলসি ফাইন্যান্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ আরিফ খান। সেমিনারে ব্রোকার, মার্চেন্ট ব্যাংকার, অ্যাসেট ম্যানেজাররা তাদের নিজ নিজ খাতে ক্যারিয়ারের কী কী সম্ভাবনা আছে, এই সম্ভাবনা কাজে লাগাতে কোন যোগ্যতা ও প্রস্তুতি প্রয়োজন তা তুলে ধরবেন।

একই দিন বিকাল ৪টায় অনুষ্ঠিত হবে শিল্পায়নে পুঁজিবাজারের ভূমিকা শীর্ষক সেমিনার। এতে প্রধান অতিথি থাকবেন অর্থ প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান।

/এসবি/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত