ঢাকা, শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৭ আশ্বিন ১৪২৫ অাপডেট : ১২ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১২:৩৮

প্রিন্ট

আনোয়ার খান মডার্ণ মেডিকেল কলেজ একটি মানসম্পন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান: ওবায়দুল কাদের

আনোয়ার খান মডার্ণ মেডিকেল কলেজ একটি মানসম্পন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান: ওবায়দুল কাদের
নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজধানীর আনোয়ার খান মডার্ণ মেডিকেল কলেজ একটি গুণগত মানসম্পন্ন মেডিকেল কলেজ বলে উল্লেখ করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। আনোয়ার খান মডার্ণ মেডিকেল কলেজের ১০ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও ১ম পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন তিনি।

সেতুমন্ত্রী বলেন, এই কলেজের প্রতিষ্ঠাতা আনোয়ার হোসেন খান একজন সমাজসেবী দানবীর মানুষ। তার সমাজসেবাটা আমার কাছে আকর্ষণীয়। তার কাছ থেকে এই অনুষ্ঠানে আসার প্রস্তাব পেয়ে আমি এই কলেজ সম্পর্কে খোঁজখবর নিয়েছি। এখানকার ব্যাকগ্রাউন্ড ও এক্সিলেন্স সম্পর্কে খোঁজ নিয়ে আমি দেখেছি, এই কলেজ গুণগত মানসম্পন্ন। এখানে গুণগত এবং মানসম্পন্ন শিক্ষা দেওয়া হয়। ফলাফলও ভালো । বাংলাদেশের ৯৭টি মেডিকেল কলেজের মধ্যে গত দুইবার আনোয়াল খান মডার্ণ মেডিকেল কলেজ প্রথম হয়েছে। এবার দ্বিতীয় হয়েছে। নিশ্চয়ই গুণগত মানসম্পন্ন শিক্ষা এখানে দেওয়া হয়। আশা করি ভবিষ্যতেও এই ধারা অব্যাহত থাকবে।

ছাত্রদের উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের বলেন, জীবন যাপনে শৃ্ঙ্খলা আনতে হবে। আর্লি রাইজিং ইজ মোস্ট ইম্পর্টেন্ট। সকাল ৭টার সময় প্রধানমন্ত্রী ছাড়া আর কোনো নেতাকে পাওয়া যায় না। রাত দুটোয় কল করলেও প্রধানমন্ত্রীকে পাওয়া যেতে পারে। এমনকি ভোরেও তিনি নামাজ পড়তে উঠেন। পবিত্র কোরআন শরীফ তেলাওয়াত করেন।

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, কোনো দাবি থাকলে তোমরা যে রাস্তা অবরোধ কর তাতে তোমাদের বাবা-মাও ভোগান্তিতে পড়তে পারেন। কাজেই এ ধরনের কাজ করে সাধারণ জনগণকে কষ্ট দেওয়া উচিৎ নয়।

তিনি বলেন, ভালো ফলাফল করে কিছু হবে না যদি লাইফে ডিসিপ্লিন না থাকে। যদি কমিটমেন্ট না থাকে। তোমরা দেশের সেবা করো। ভালো ফলাফল করে কী লাভ যদি ভালো ডাক্তার হিসেবে জনগণকে সেবা না দেওয়া যায়।

সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন আনোয়ার খান মডার্ণ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চেয়ারম্যান ড. আনোয়ার হোসেন খান।

এর আগে আনোয়ার খান মডার্ণ মেডিকেল কলেজের ১০ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও ১ম পুনর্মিলনী উপলক্ষে র‌্যালি বের করে প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। শুক্রবার সকালে রাজধানীর ধানমণ্ডি আট নম্বর সড়কের নিজস্ব ক্যাম্পাস থেকে র‌্যালিটি বের হয়ে মিরপুর রোড হয়ে কলাবাগান ঘুরে ক্যাম্পাসে ফিরে আসে।

র‌্যালিতে অংশ নিতে এ দিন সকালে কলেজের সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা সকালে কলেজ প্রাঙ্গণে জড়ো হন। সুসজ্জিত ঘোড়ার গাড়ি ও ব্যান্ড পার্টির বাজনার তালে তালে সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা নেচে গেয়ে র‌্যালিতে অংশ নেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আনোয়ার খান মডার্ণ মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডাঃ মোঃ ফজলুর রহমান, উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডাঃ মোঃ এখলাসুর রহমান, অধ্যাপক ডাঃ মোঃ তাহমিনুর রহমান (প্যাথলজী বিভাগ), অধ্যাপক ডাঃ মোঃ মাহফুজার রহমান (কমিউনিটি মেডিসিন বিভাগ), অধ্যাপক ডাঃ কে এম এইচ এস সিরাজুল হক (কার্ডিওলজী বিভাগ), অধ্যাপক ডাঃ এজেডএম মাইদুল ইসলাম (স্কিন অ্যাণ্ড ভিডি বিভাগ), অধ্যাপক ডাঃ ফিরোজ আহম্মদ কোরাইশি (নিউরো মেডিসিন), অধ্যাপক ডাঃ মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান (মেডিসিন বিভাগ), অধ্যাপক ডাঃ সৈয়দ খায়রুল আমিন (পেডিয়াট্রিক বিভাগ), অধ্যাপক ডাঃ এম আলমগীর চৌধুরী (ইএনটি বিভাগ), অধ্যাপক ডাঃ এহ্তেশামুল হক (অনকোলজি বিভাগ), অধ্যাপক ডাঃ মোঃ হাবিবুজ্জামান চৌধুরী (ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগ), অধ্যাপক ডাঃ রোকেয়া বেগম (ফিজিওলজি বিভাগ), অধ্যাপক ডাঃ মোঃ রাজিবুল আলম (মেডিসিন বিভাগ), অধ্যাপক ডাঃ এ.কে.এম আমিনুল হক (মেডিসিন বিভাগ), অধ্যাপক ডাঃ মনোয়ারুল ইসলাম (অর্থোপেডিক বিভাগ), অধ্যাপক ডাঃ মোঃ সানোয়ার হোসেন (চক্ষু বিভাগ), অধ্যাপক ডাঃ এমআইএম নাসিম সোবহানী (সার্জারি বিভাগ), অধ্যাপক ডাঃ এএফএম সাইফুল ইসলাম (ফার্মাকোলজি বিভাগ), অধ্যাপক ডাঃ সুলতানা রোকেয়া মান্নান (ফিজিওলজী বিভাগ), সহযোগী অধ্যাপক ডাঃ জাকিয়া সুলতানা সহিদ (চক্ষু বিভাগ), সহযোগী অধ্যাপক ডাঃ সুহা জেসমিন (গাইনী এন্ড অব্স), সহযোগী অধ্যাপক ডাঃ আতিকুর রহমান (কমিউনিটি মেডিসিন বিভাগ), সহযোগী অধ্যাপক ডাঃ সৈয়দ মোঃ তানজিলুল হক (ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগ) প্রমুখ।

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত