ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৮, ১ কার্তিক ১৪২৫ অাপডেট : ৮ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২২ জুলাই ২০১৮, ১৬:৪৫

প্রিন্ট

ফ্লোরিডায় নিহত আইয়ুবের সন্তানরাও গুলির মুখোমুখি

ফ্লোরিডায় নিহত আইয়ুবের সন্তানরাও গুলির মুখোমুখি
অনলাইন ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় গুলিতে নিহত বাংলাদেশি আইয়ুব আলীর দুই সন্তান পাঁচ মাস আগে মার্জোরি স্টোনম্যান ডগলাস হাইস্কুলে এক গুলির ঘটনায় প্রাণে বেঁচে গিয়েছিল। সন্তানরা বাঁচলেও বাবা মারা যান অন্য এক দুর্বৃত্তের গুলিতে।

ফ্লোরিডার নর্থ লডারডেল সিটির ১৬৯১ সাউথ স্টেট সড়কে ‘আন্ট মলি’জ ফুড স্টোর নামে একটি দোকান আছে আইয়ুব আলীর। গত মঙ্গলবার দুপুরে ওই দোকানেই মাথায় গুলি করে তাকে হত্যা করে এক কৃষ্ণাঙ্গ যুবক।

শুক্রবার দুপুরে দক্ষিণ ফ্লোরিডার একটি মসজিদে জানাজার পর তাকে স্থানীয় মুসলিম গোরস্তানে দাফন করা হয়।

এর আগে গত ১৪ ফেব্রুয়ারি এক ছাত্র অ্যাসল্ট রাইফেল নিয়ে স্কুলে ঢুকে নির্বিচারে গুলি চালিয়ে ১৭ জনকে হত্যা করে। এই ঘটনায় আইয়ুব আলীর দুই ছেলে মেয়ে রাহাত ও ইলামা সেদিন কোনোক্রমে প্রাণে বেঁচে যায়।

এই পরিবারের বন্ধু মির্জা মোস্তাক বলেন, ওই ঘটনার মাত্র পাঁচ মাসের মাথায় ঘাতকের গুলিতে বাবার মৃত্যু তারা কোনোভাবেই মেনে নিতে পারছে না।

চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি থেকে ২২ বছর আগে যুক্তরাষ্ট্রে আসেন আইয়ুব। গত বছর পার্কল্যান্ড এলাকায় একটি বাড়ি কিনে তিন মেয়ে, এক ছেলে ও স্ত্রীকে নিয়ে সেখানেই থাকছিলেন তিনি।

মার্কিন সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, টাইরন ফিল্ডস জুনিয়র নামের ১৯ বছর বয়সী ওই কৃষ্ণাঙ্গ যুবক পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেছে। তার বিরুদ্ধে আদালতে হত্যা ও সশস্ত্র ডাকাতির দুটি অভিযোগ আনা হয়েছে।

জেডএইচ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত