ঢাকা, শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭, ১ পৌষ ১৪২৪ অাপডেট : ৩৮ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ০৭ অক্টোবর ২০১৭, ১০:১৯

প্রিন্ট

অবশেষে ভেঙেই গেলো মিলার সংসার

বিনোদন প্রতিবেদক

পপ গায়িকা মিলার বিবাহবিচ্ছেদের গুঞ্জনটা গত মাসেই ছড়িয়েছিলো। দেশের অধিকাংশ গণমাধ্যমের শিরোনাম হয় তার সংসার ভাঙনের কথা। কিন্তু তখন তিনি ব্যাপারটাকে কেবল গুজব বলেই উড়িয়ে দেন। কিন্তু মাস খানের পর সেই গুঞ্জনটাই সত্যি হলো। বিচ্ছেদের সুর বেজে উঠলো মিলার সংসারে। বিয়ের মাত্র ৪ মাসের মাথায় ডিভোর্সের সিদ্ধান্ত নিলেন তিনি।

শুক্রবার (৬ অক্টোবর) দিবাগত রাত ৩টার দিকে মিলা ফেসবুকের মাধ্যমে বিষয়টি জানান। একটি দীর্ঘ স্ট্যাটাস দিয়ে মিলা তার সংসার ও বিচ্ছেদের ব্যাপারে কথা বলেন।

মিলা লেখেন, হ্যাঁ, আমি ডিভোর্স দিতে যাচ্ছি। পারভেজ সানজারির সঙ্গে ১০ বছর প্রেম করার পর বিয়ে করেছিলাম। কিন্তু বিয়ের মাত্র ১৩ দিনের মাথায় জানতে পারি আমার স্বামী একাধিক নারীর সঙ্গে সম্পর্কে জড়িত। আমার স্বামী ক্রমাগত আমার সাথে প্রতারণা করতে থাকে। বিয়ের আগে যখন আমরা ডেটিং করতাম তখনও একাধিক নারীর সঙ্গে প্রেম করে আমার সঙ্গে প্রতারণা চালিয়ে যাচ্ছিল সে। এমন প্রতারকের সঙ্গে বসবাস করা অসম্ভব। সততা ছাড়া জীবন কিছুই না।

মিলা আরো লেখেন, একজন মানুষ হিসেবে আমি এটা মানতে পারি না। কারোরই উচিৎ না। কোনো পুরুষ তার স্ত্রীর অন্য কারো সঙ্গে সম্পর্ক মেনে নেবে না, মেয়েদেরও মেনে নেওয়া উচিৎ না। আমি এখনো চেষ্টা করেছি সংসারটা টিকিয়ে রাখতে। কিন্তু তার (পারভেজ সানজারি) কাছ থেকে কেবল মানসিক নির্যাতন পেয়ে যাচ্ছিলাম। এ ছাড়া শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়েছি। অনেক চেষ্টা করেও সংসার টেকাতে পারলাম না। একটা সময় উপলব্ধি করলাম যে আমি আর এ সব সহ্য করতে পারছি না। এখন আমার ভাগ্য আমার নিজের হাতে নিতে হবে এবং এই খারাপ পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। আমার পরিবারের সহযোগিতায় আমি উত্তরা থানায় নারী শিশু নির্যাতন দম আইন ২০০০(সংশোধিত ২০০৩) এ মামলা করেছি এবং এরপর পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেছে।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার (৫ অক্টোবর) মিলা তার স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করেন। এবং সেদিন রাতেই পারভেজ সানজারিকে গ্রেফতার করে উত্তরার পশ্চিম থানা পুলিশ।

উল্লেখ্য, ১০ বছর প্রেপ করার পর গত ১২ মে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়েছিল মিলা ও পারভেজের। পারভেজ সানজারি একটি বেসরকারি এয়ারলাইন্সের পাইলট হিসেবে কর্মরত।

কেআই/ 

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত