ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫ অাপডেট : ১৭ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৫:৫৫

প্রিন্ট

ফিলিপিনের নানা রকম স্ট্রীট ফুড

ফিলিপিনের নানা রকম স্ট্রীট ফুড
জার্নাল ডেস্ক

ফিলিপিনের সবচেয়ে জনপ্রিয় খাবারের তালিকা খুঁজতে গেলে বেশ কিছু নাম পাবেন। জেনে নিন ফিলিপিনো কোন খাবারগুলো স্থানীয়দের মাঝে তো বটেই, সব দেশের পর্যটকদের মধ্যেও তুমুল জনপ্রিয়।

চিকেন এডোবো: মুরগি অথবা শুকরের মাংসকে সয়াসস আর ভিনেগারের মিশ্রণে মেরিনেট করে রান্না করা হয়। অনেকে মেরিনেড করার সময় চা,মধু বা কফির গুঁড়া দিয়ে থাকেন। এই খাবারটি সাধারণত ভাতের সাথে খাওয়া হয়।

পান্সেট: নুডলস জাতীয় এই খাবারটি পরিবেশন করার সময় উপরে ছড়িয়ে দেয়া হয় কালামানছি নামের এক ধরনের লেবু জাতীয় ফল। অত্যন্ত টক এই ফলটি পান্সেট এর সাথে অনেকে সসের মতো মিশিয়ে খেতে ভালোবাসেন।

কারে কারে: কারে কারে ষাঁড়ের লেজ দিয়ে তৈরি হয়। পিনাট বাটার, পেঁয়াজ আর রসুন মিশিয়ে বানানো এই স্ট্যু শ্রিম্প সস আর কালামানছি দিয়ে পরিবেশন করা হয়।

কিনিলো: এটা কাঁচা মাছের সালাদ। এই খাবারে মাছটিকে ভিনেগার আর কালামানছি দিয়ে পরিবেশন করা হয়। অনেকে এতে পেঁয়াজ, রসুন, আদা, গোল মরিচ আর গুড়ো মরিচ দিয়েও পরিবেশন করে থাকেন।

টাপসিলোগ: টাপসিলোগ শব্দটা এসেছে টাপা (নোনা মাংস), সিনানগাগ (ফ্রাইড রাইস) আর ইতলোগ (ডিম ভাজা), এই তিনটি শব্দ থেকে। যেগুলো মূলত এই খাবারের তিনটি উপাদান।

বাল্যুট: ডিম ফুটে বের না হওয়া হাঁসের ছানা ব্যাপকভাবে জনপ্রিয় ফিলিপিনসহ ভিয়েতনাম, লাওস আর কেম্বোডিয়াতে। সাধারণত ১৭ দিন বয়সের ডিমগুলোকে সেদ্ধ করে এই খাবারটা বানানো হয়, যাতে হাঁসের পালক, ঠোঁট, নখ আর হাড় খুব সুগঠিত না হয়।

ইনাসাল: ফিলিপিনো রোস্টকে বলা হয় ইনাসাল। প্রথমে মাংসকে কালামানছি সস সহ আরো অনেক উপকরণ দিয়ে মেরিনেট করে সরাসরি আগুনের উপর ঝুলিয়ে রোস্ট করা হয়। পরে সয়াসস, আর তরল চিকেন ফ্যাট দিয়ে ভাতের সাথে পরিবেশন করা হয়।

সিসিগ: ফিলিপিনের পাম্পাংগা অঞ্চলে শুকরের বা গরুর মাংসের টুকরোর সাথে পেঁয়াজের সাথে মিশিয়ে তেলে ভেজে গরম গরম পরিবেশন করা হত। একসময় এই খাবার দেশের সর্বত্র জনপ্রিয়তা পায়।

সিনিগাং: এটা মাংস দিয়ে তৈরি এক ধরনের স্ট্যু বা স্যুপ, যেটা সবজির সাথে পরিবেশন করা হয়। যাতে বেশিরভাগ শুকরের মাংস ব্যবহার করা হয়। তবে মুরগি বা মাছও ব্যবহার করা হয়। টক স্বাদের জন্য তেঁতুল, কালামানছি বা টমেটো ব্যবহার করা হয়।

হলো হলো: এই খাবারটিতে কয়েকটি স্তরে নানান রঙ্গের জেলি, দুধ, বিন, ফল আর আইসক্রিম মিশিয়ে বানানো হয়। এটাতে ব্যবহার করা হয় উবে নামের নীলাভ এক ধরনের আইসক্রিম।

টাহো: এই খাবারটিকে দেখে মনে হতে পারে মাছের ডিম। মিষ্টি এই খাবারটি বানানো হয় টফ্যু, টাপিওকা আর দুধ মিশিয়ে।

বুকো: বুকো একটি ফিলিপিনো শব্দ, যার অর্থ নারিকেল। ফিলিপিনোরা একদিনও এই ফলটা ছাড়া থাকতে পারে না। তারা ডাবের পানি ও ভেতরের নরম শাঁস খেতে ভারী ভালোবাসে।

আরএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত