ঢাকা, সোমবার, ২১ মে ২০১৮, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ অাপডেট : ১০ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২০ এপ্রিল ২০১৮, ২০:৩৪

প্রিন্ট

বাংলা টিভি সিরিয়ালে সামাজিক অবক্ষয় তুলে ধরা হচ্ছে: মমতা

বাংলা টিভি সিরিয়ালে সামাজিক অবক্ষয় তুলে ধরা হচ্ছে: মমতা
ফাইল ছবি
জার্নাল ডেস্ক

এবার হিংসা ছড়ানোর রুখতে এমএসও ও কেবল অপারেটরদের বার্তা দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সিরিয়ালের বিষয়বস্তু নিয়েও প্রশ্ন তোলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা। এদিন টিভি চ্যালেনগুলির কর্তাদের উদ্দেশ্যে প্রশ্ন ছোড়েন তিনি। বলেন, এক জনের তিনটে বউ। তিনটে কুটুন্তি। দেখানোর দরকার কী? সবই ঝগড়া। বাবার পরিচয় নেই। এ ওকে বিষ খাওয়ায়। ও জলে বিষ মেশায়। যত সব খারাপ জিনিস। এসব দেখানো কেন?  

শুক্রবার নেতাজী ইন্দোরে কেবল অপারেটরদের সংগঠনের বৈঠকে যোগ দিয়ে কার্যত এমনই প্রশ্ন তুললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

রাখঢাক না করেই এদিন মুখ্যমন্ত্রী এমএসও ও কেবল অপারেটরদের সাফ জানিয়ে দেন, ‘রাজ্যে ভুয়া নিউজের রমরমা বেড়েছে। ভুয়াভাবে ছড়ানো গুজবে অশান্তি তৈরি হচ্ছে। যদি, দেখেন এমন কোনও ঘটনা ঘটেছে, তা আপনারা দেখাবেন না। এটা আপনাদের কাছে আমার অনুরোধ। হিংসা রুখে শান্তি রক্ষা করার দায়িত্ব আপনাদেরও আছে।’ 

এদিন কেবল টিভি অপারেটর ও এমএসওদের বার্ষিক সাধারণ সভায় হাজির হয়ে কেবল শ্রমিকদের জন্য একগুচ্ছ প্রকল্পের ঘোষণা করেন তিনি। এমএসও ও অপারেটরদের সমস্যা মেটাতে গুচ্ছ পদক্ষেপ নেওয়ার আশ্বাস দেওয়ার পাশাপাশি, রাজ্যে শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষায় কেবল অপারেটরদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা কথাও তুলে ধরেন মুখ্যমন্ত্রী৷ মঞ্চে দাঁড়িয়ে কেবল নেটওয়ার্কের সঙ্গে যুক্ত ১ লক্ষ ৩০ হাজার শ্রমিককে স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প ও পেনশন দেওয়ার কথা ঘোষণা করেন। এখন থেকে এই পেশায় যুক্ত কর্মীরা প্রতিমাসে ২৫ টাকা করে জমা করবেন। ওই জমা অর্থের উপর আরও ৩০ টাকা জমা করবে রাজ্য সরকার।

এদিন তিনি জানিয়ে দেন, কর্মীদের যাতে সুবিধা হয়, তার জন্য সরকার প্রশিক্ষণেরও ব্যবস্থা করবে। এমনকি, কেবল অপারেটররা ২০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত জিএসটিতে ছাড় পাবেন বলেও ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী। এছাড়াও কেবল ব্যবসা করতে গিয়ে যাতে কোনও সমস্যা না হয়, তা নিশ্চিত একটি কমিটিও গড়ে দেন মুখ্যমন্ত্রী। যে কমিটিতে পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, শ্রমমন্ত্রী মলয় ঘটক ছাড়া এমএসও ও ব্রডকাস্টার এবং অপারেটরদের প্রতিনিধিরাও থাকবেন বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী৷

এনএইচ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত