ঢাকা, বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ৩০ কার্তিক ১৪২৫ অাপডেট : ৬ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৭ আগস্ট ২০১৮, ১১:৩৫

প্রিন্ট

ইমরান চান, তবে সার্কে অনীহা মোদির

ইমরান চান, তবে সার্কে অনীহা মোদির
অনলাইন ডেস্ক

চলতি বছরের শেষ নাগাদ সার্ক সম্মেলনের আয়োজন করতে চলেছে পাকিস্তান। এতে যোগ দিতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে রাজি করানোর চেষ্টা করছেন দেশটির হবু প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। কেননা এটি তার ভবিষ্যৎ সরকারের কাছে মর্যাদা রক্ষা এবং দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলির কাছে শান্তির বার্তা পৌঁছনোর মোক্ষম সুযোগ। তবে মোদি এতে যোগ দেবেন বলেই ধারণা করা হচ্ছে।

এর আগে মোদির কারণেই ভণ্ডুল হয়েছিল ২০১৬ সালের সার্ক সম্মেলন। উরি হামলার জের ধরে বাংলাদেশ, ভুটান, শ্রীলঙ্কার মতো দেশগুলিকে সঙ্গে নিয়ে সার্ক বয়কট করেছিল ভারত।

এবার সার্কে যোগ দিতে পাকিস্তানের আমন্ত্রণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ইসলামাবাদে যাবেন কি না তা এখনও নিশ্চিত নয়। তবে মোদিকে রাজি করাতে চেষ্টার ত্রুটি রাখছেন না ইমরান খান। শীর্ষ পর্যায়ের কোনও রাজনৈতিক নেতাকে দূত হিসেবে ভারতে পাঠানোর পরিকল্পনা রয়েছে তার।

ভারতকে সার্কের মঞ্চে হাজির করতে মরিয়া পাকিস্তান। কেননা এটি হবে সাম্প্রতিক অতীতে দক্ষিণ এশিয়ায় শান্তি-প্রয়াসের সবচেয়ে বড় এবং প্রথম বিজ্ঞাপন। এই সুযোগ হাতছাড়া করতে নারাজ পাকিস্তানের হবু প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। কিন্তু সাউথ ব্লক সূত্র বলছে, সার্কে যোগ দেওয়ার ব্যাপারে এখনও পর্যন্ত কোনো আগ্রহ দেখাচ্ছেন না মোদি।

ভারতে নভেম্বরে শুরু হয়ে যাবে ভোটের মৌসুম। একই সঙ্গে তিনটি রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন এবং তার পরেই লোকসভা। সূত্রের মতে, এমন স্পর্শকাতর সময়ে ইসলামাবাদে গিয়ে কোনও রকম ঝুঁকি নিতে চাইছেন না প্রধানমন্ত্রী। যদিও যুক্তরাষ্ট্রসহ গোটা পশ্চিমী দুনিয়াকে হাতে রাখতে উপরে উপরে পাকিস্তানের সঙ্গে সম্পর্ক ((যেমন, সে দেশের নাগরিকদের মুক্তি দেওয়া) রাখছেন মোদি।

তবে ইসলামাবাদের মাটিতে সে দেশের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করার প্রশ্নে কোনো ছাড় দিতে নারাজ নয়াদিল্লি।

এ সম্পর্কে ভারতের এক কর্মকর্তার মন্তব্য, প্রধানমন্ত্রী হয়তো পাকিস্তানে সার্ক সম্মেলন করে ফিরলেন। তার পরেই দেশের কোথাও অথবা কাশ্মীরেই সন্ত্রাসবাদী হামলা হল। তাতে সরকারের মুখ পুড়বে। ঠিক যেমনটা হয়েছিল পাঠানকোটের সেনা ছাউনিতে হামলার সময়ে।

কেননা পাঠানকোট হামলার এক সপ্তাহ আগে বিনা আমন্ত্রণেই তৎকালীন পাক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের পারিবারিক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে লাহোরে গিয়েছিলেন মোদি। এ নিয়ে তখন প্রচুর কথা শুনতে হয়েছে তাকে। তাই এবার ভোটের আগে এমন কোনও ‘ভুল’ করতে রাজি নয় মোদি সরকার।

সূত্র: আনন্দবাজার

এমএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত