ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৮, ১ কার্তিক ১৪২৫ অাপডেট : ২ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ০৮ আগস্ট ২০১৮, ১৭:১৬

প্রিন্ট

ঈদের আগে জামদানি বৃত্তান্ত

ঈদের আগে জামদানি বৃত্তান্ত
জার্নাল ডেস্ক

চলে এসেছে কোরবানির ঈদ। এই উৎসবে বাঙ্গালি নারীর প্রথম পছন্দ জামদানি। তবে জামদানির কিন্তু রয়েছে প্রকারভেদ। নকশারও আছে নানা রকম। আর যেটা সব থেকে জরুরি তা হলো জামদানির যথাযথ যত্ন নেয়া।

কেমন নকশা শুধু ফুল নয়, জামদানির নকশায় থাকে পান্না, কল্কা, বুটিদার, ঝালর, তেরছা, ডুরে বা চতুষ্কোণ বুননও। এমনকি অঞ্চলভেদেও ভিন্ন হয় জামদানির মান। বাংলাদেশের ঢাকাই ও টাঙ্গাইল জামদানি আর ভারতের শান্তিপুর ও ধনিয়াখালির জামদানি সবচেয়ে জনপ্রিয়।

জামদানির ধরণ জামদানির মধ্যে রয়েছে হাফ সিল্ক, রেশম সুতায় বোনা জামদানি, সুতি জামদানি, মসলিন জামদানিসহ আরো অনেক ধরনের জামদানি।

জামদানির যত্ন জামদানি শাড়ি ঘরে ধুলে নষ্ট হয়ে যায়। বরং ড্রাই ওয়াশ বা কাটা করিয়ে নিলে ভাল। কাটা করা মানে শাড়িতে মাড় প্রয়োগ করা। ২/৩ বার পরার পর কাটা করিয়ে নিলে জামদানি অনেক দিন ভাল থাকবে।

শাড়িটি কিছু দিন পরপর রোদে দিন, এরপর ভাল মত বাতাসে ঠাণ্ডা করে যত্ন সহকারে তুলে রাখুন। সরাসরি রোদ থেকে এনে তুলে রাখলে শাড়ির আয়ু কমে যাবে।

জামদানি পরার পর দাগ লাগলে তাতে ট্যালকম পাউডার ছড়িয়ে এটি দাগ কিছুটা শুষে নেবে। পরে ড্রাই ক্লিনের জন্য পাঠান। পানি দিয়ে ধুবেন না কারণ তাতে দাগ বসে যাবে আর পাউডার কাজ করবে না ।

জামদানি শাড়ি ভাজ করে রাখবেন না। এই শাড়ি লম্বালম্বি ভাবে রোল করে রাখুন। এতে ভাজে ভাজে শাড়ি ফেটে যাবে না। আরএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত