ঢাকা, শনিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৮, ৩ ভাদ্র ১৪২৫ অাপডেট : ২৬ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৩ জুন ২০১৮, ২০:৫৩

প্রিন্ট

কারো দয়ার রাজনীতি করি না: ফখরুল

কারো দয়ার রাজনীতি করি না: ফখরুল
নিজস্ব প্রতিবেদক

কারো দয়া বা নির্ভরতার আমরা (বিএনপি) রাজনীতি করি না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বুধবার পল্টনস্থ হোটেল অরনেটে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় লেবার পার্টি আয়োজিত এক ইফতার ও দোয়া মাহফিলে তিনি এ মন্তব্য করেন।

বিএনপি জনগণ ও দেশের মানুষের শক্তিতে বিশ্বাস করে মন্তব্য করে মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা সব সময় জনগণের শক্তি নিয়েই আন্দোলনকে সফল করেছি। জনগণের শক্তি নিয়ে আমরা নির্বাচনে জিতেছি, রাষ্ট্র ক্ষমতায় গিয়েছি এবং সরকার গঠন করেছি। কারো দয়া বা কারো নির্ভরতার আমরা রাজনীতি করি না। সুতরাং বাংলাদেশের জনগণের গায়ে একবিন্দু রক্ত থাকা পর্যন্ত দেশের স্বাধীনতা বিক্রি করে দিতে কেউ ষড়যন্ত্র করতে পারবে না 

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বেগম জিয়ার আস্থার ব্যাপার আছে। আর জেল কোডে কোথাও লেখা নেই যে, শুধু মাত্র সরকারি হাসপাতালেই চিকিৎসা করতে হবে। আমাদের দলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ইউনাইটেড হসপিটালে তার চিকিৎসা ব্যবস্থা করা হলে বিএনপির সমস্ত খরচ বহন করবে এবং পরিবারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, পরিবার বহন করবে। সুতরাং এখন বিলম্ব করার অর্থই হচ্ছে, বেগম জিয়ার জীবনে একটা হুমকির সম্মুখীন হওয়া। আমরা মনে করি, সরকারের শুভবুদ্ধির উদায় হবে।  অবিলম্বের বেগম জিয়াকে ইউনাইটেড হসপিটালে নিয়ে তার সু-চিকিৎসার ব্যবস্থা করবে।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, আমাদেরর সামনে এখন দুঃসময় অতিক্রম করছে। এই দুঃসময়কে অতিক্রম করতে হলে আমাদেরকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। এই সংকট শুধু বিএনপি ও বেগম জিয়া নয়- এই সংকট সমগ্র দেশ এবং জাতির। আমাদের সমস্ত অর্জনগুলো ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে। সুতরাং আমাদের রুখে দাঁড়াতে হবে। 

সংসদ নির্বাচন প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, নির্বাচনের আগে ইসি পুনর্গঠন করতে হবে, সংসদ ভেঙে দিতে হবে এবং সেনা মোতায়েন করতে হবে। 

একটি স্বাধীন ও সভ্য দেশে পাখির মত গুলি করে মানুষ মারা হচ্ছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, এর কোন জবাবদিহিতা নেই। আর এ সমস্ত কথা বলতে গেলে, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা এমন এমন কথা বলেন- যেন রাষ্ট্রের কর্মকর্তা তারাই! আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। 

বিনা বিচারে মানুষ হত্যা বন্ধ করার আহ্বান জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, মানুষ হত্যা বন্ধ করতে হবে। অন্যথায় এর জবাবদিহিতা একদিন না একদিক আপনাদের (সরকার) করতেই হবে।

বিএনপি চেয়ারপার্সনের জামিন পাওয়ার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, পবিত্র রমজানে মাসেও জামিন পাওয়ার আইনগত যেসমস্ত সুবিধা থাকার দরকার, সেগুলো থাকার পরেও তাকে জামিন দেয়া হয়নি। হাইকোর্ট থেকে জামিন পাওয়ার পরেও তাকে ইচ্ছেকৃতভাবে জামিন দেয়া হয়নি। সেটা বিলম্ব করা করেছে। আর এখনও বিলম্ব করা হচ্ছে। 

বেগম জিয়া অত্যন্ত অসুস্থ উল্লেখ করে তিনি বলেন, অসুস্থতার পিছনে যে বিষয়গুলো রয়েছে- সেগুলো সম্পূর্ণ রাজনৈতিক। কারণ সম্পূর্ণ অন্যায়ভাবে রাজনৈতিক কারণে তাকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। 


কেএস/জেডএইচ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত