ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৭, ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ অাপডেট : ২৯ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ০৯ নভেম্বর ২০১৭, ১২:১৬

প্রিন্ট

ছুটিতে ঘুরে আসুন ‘মঙ্গল’-এ

ফজলুল বারী

‘দোল ও হোলি মিলিয়ে নাকি চারদিনের টানা ছুটি! তা পিঠে ব্যাগ ঝুলিয়ে দিঘা কিংবা পুরী ঘুরে এলেই হয়। নাহ! বড্ড কাছে হয়ে যাচ্ছে। একটু দূরে গেলে মন্দ হয় না। কিন্তু তা বলে মঙ্গল গ্রহ? অবাক হচ্ছেন! না, শুনতে কল্পবিজ্ঞানের গল্প মনে হলেও এটাই কিন্তু বাস্তব। প্রায় এক লক্ষ ভারতীয় ইতিমধ্যে ‘লালগ্রহে’ যাওয়ার টিকিট কেটে ফেলেছেন। এই টিকিট বিলি করছে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ‘নাসা’।

নাসা জানিয়েছে, যাঁরা টিকিট কেটেছেন তাঁদের ‘ইনসাইট’ অভিযানে মঙ্গলে নিয়ে যাওয়া হবে। চমকে উঠছেন? হয়ত ভাবছেন এতটা এগিয়ে গিয়েছে প্রযুক্তি! তবে এখানে একটু টুইস্ট রয়েছে। এখনই সশরীরে যাত্রীদের লালগ্রহে পাঠাচ্ছে না নাসা। পরিবর্তে ওই গ্রহে পৌঁছে যাবে তাঁদের নাম। যে সমস্ত যাত্রীরা টিকিট কেটেছেন, তাঁদের নাম লিখে দেওয়া হবে ‘ইনসাইট’ মার্স ল্যান্ডারের গায়ে।

বুধবার এক বিবৃতিতে নাসা জানায়, ইতিমধ্যে প্রায় ১ লক্ষ ৩৮ হাজার ভারতীয় ওই টিকিট কিনেছেন। তবে সব থেকে বেশি টিকিট কিনেছেন মার্কিন নাগরিকরা। ওই তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে চিন। তৃতীয় স্থানে রয়েছে ভারত। সব মিলিয়ে প্রায় ২৪ লক্ষ নাম জমা পড়েছে নাসার কাছে। এখন টিকিট বিলি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। যাত্রীদের অনলাইন ‘বোর্ডিং পাস’ দেওয়া হবে।

২০১৮ সালের ৫ মে মঙ্গল গ্রহের উদ্দেশ্যে পাড়ি দিতে চলেছে নাসার ‘ইনসাইট’ নামের ‘মার্স ল্যান্ডার’। ওই বছরই ২৬ নভেম্বর মঙ্গল অবতরণ করবে ওই যান। প্রায় ৭২০ দিনের অভিযানে মঙ্গলের ভূপৃষ্ঠে নানা বৈজ্ঞানিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাবে ‘ইনসাইট’। বিশেষ করে ওই গ্রহে হওয়া ভূমিকম্পের তথ্য সংগ্রহ করে পৃথিবীতে পাঠাবে মার্স ল্যান্ডার। ইতিমধ্যে নাসার এই অভিযান সাড়া ফেলে দিয়েছে দেশে। ‘মঙ্গলায়ন’ অভিযানে ভারতের সাফল্য লালগ্রহের প্রতি ভারতীয়দের আগ্রহ বাড়িয়ে তুলেছে বলেই মনে করছেন অনেকে। এছাড়াও মহাকাশ গবেষণা ছাড়াও একাধিক বিষয়ে ভারত ও আমেরিকার ক্রমবর্ধমান সহযোগিতার জন্যও অনেকেই এই অভিযানের টিকিট কিনতে আগ্রহী বলে মনে করছে নাসা।’

লেখক: প্রবাসী

(লেখকের ফেসবুক থেকে)

/এসএস/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত