ঢাকা, শনিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৭, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ অাপডেট : ৪১ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৩ নভেম্বর ২০১৭, ১৬:২৮

প্রিন্ট

সম্পর্কে আগ্রহ নেই ৬১ ভাগ ব্রিটিশ নারীর

অনলাইন ডেস্ক

সম্পর্কে আগ্রহ হারাচ্ছে ব্রিটিশ নারীরা। কেননা সংসার মানেই হাজারটা ঝুট ঝামেলা। পুরুষ সঙ্গীটি তো কেবল নিয়ম মাফিক চাকরি বাকরি করেই খালাস। তাকে তো সংসারের কুটোটা পর্যন্ত নাড়াতে হয় না। অন্যদিকে একজন স্ত্রীকে তো চাকরি, ঘর-সংসার, ছেলেমেয়ের দেখভাল সমস্ত দায়িত্ব একা হাতে সামলাতে হয়। এ কারণেই বিয়ে বা যে কোনো সম্পর্ক থেকে মুক্ত চাইছেন আধুনিক নারীরা। সম্প্রতি এক নতুন গবেষণা জরিপে এই তথ্য বেরিয়ে এসেছে।

বিশ্বখ্যাত তথ্য বিশ্লেষনকারী প্রতিষ্ঠান মিনটেল পরিচালিত ওই জরিপে দেখা যায়, শকতরা ৬১ শতাংশ নারীই সিঙ্গেল বা একা থাকতে পছন্দ করেন । পুরুষদের বেলায় এই সংখ্যা মাত্র ৪৯ ভাগ।

জরিপে আরো দেখা যাচ্ছে, গতবছর শতকরা ৭৫ শতাংশ নারী সম্পর্কে জড়ানোর চেষ্টা করেননি। অন্যদিকে সম্পর্কে জড়াতে চাননি এমন পুরুষের সংখ্যা নারীদের তুলনায় ১০ ভাগ কম অর্থাৎ ৬৫ ভাগ।

নারীদের মধ্যে এই একা থাকার প্রবণতাটা গড়ে উঠার কারণ হচ্ছে সঙ্গীর তুলনায় অধিক চাপ বা দায়িত্ব। গবেষণায় দেখা যাচ্ছে, নারীদের কাছে সম্পর্ক মানেই প্রচুর ঝামেলা। কেননা সম্পর্কে জড়ানোর পর পুরুষ  সঙ্গীটির তুলনায় একজন নারীকে অনেক বেশি কাজ ও পরিশ্রম করতে হয়। তাই একা থাকাকেই ভালো মনে করছে নারীরা।

এ প্রসঙ্গে অ্যাসেক্স বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক এমিলি গ্রানডি দ্য টেলিগ্রাফ পত্রিকাকে বলেন,‘এই জরিপ এটাই প্রমাণ করে, পুরুষদের তুলনায় নারীদের গৃহস্থালী কাজ বেশি করতে হয়। শুধু গৃহস্থালী নয়, আমার তো মনে হয় আবেগীয় কাজও পুরুষদের তুলনায় তাদেরই বেশি করতে হয়।’

তাই মেয়েরা এখন বিয়ে শাদি না করে একাকী জীবন কাটানোর প্রতি আগ্রহী হয়ে ওঠেছেন। অন্য যে কোনো কিছুর চাইতে স্বাধীন থাকতে পারাটাই তাদের কাছে অনেক আনন্দের।

সূত্র: দ্য ইনডিপেন্ডেন্ট।

এমএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত