ঢাকা, শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭, ১ পৌষ ১৪২৪ অাপডেট : ৪৩ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২৯ নভেম্বর ২০১৭, ১১:০৪

প্রিন্ট

এখন আর কেউ বলবে না, তুমি কেমন আছ মা!

গাজীপুর প্রতিনিধি

পড়ালেখা করে জীবনে বড় হওয়ার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমায় ছেলে। তাই ছয় বছর ধরে ছেলের পথ পানে চেয়ে থেকেছেন মা। কবে দেশে আসবে। কিন্তু এখন আর ছেলের জন্য অপেক্ষা করতে হবে না। কোনো দিন আরে ফিরে আসবে না। 

শনিবার (২৫) রাতে যুক্তরাষ্ট্রের কানসাসে উচিটা শহরে দুর্বৃত্তের গুলিতে প্রাণ হারান বাংলাদেশি তরুণ এম হাসান রহমান বাঁধন। পুলিশ বলছে, এম হাসান রহমান পিৎজা ডেলিভারির কাজ করতেন। এদিন রাতে পিৎজা ডেলিভারি দিয়ে সঠিক সময়ে পিৎজা সেন্টারে না পৌঁছানোয় কর্তৃপক্ষ পুলিশকে অবহিত করে। রোববার বেলা ১১টায় পুলিশ ৭৮০০ পেজন্ট লাইভ ওক স্ট্রিট অ্যাপার্টমেন্টের সামনে গাড়ির ট্যাংক থেকে তার লাশ উদ্ধার করে। 

এম হাসান রহমান বাঁধন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের তেলিপাড়া সেতু রোডে এলাকার বাসিন্দা প্রকৌশলী মজিবুর রহমানের ছেলে। মা-বাবার একমাত্র ছেলে ২০১১ সালে অ্যারোনটিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং পড়তে যুক্তরাষ্ট্রে যান।  

বাঁধনের মা হাসনা আরা বেগম কান্না জড়িত কণ্ঠে তিনি বলেন, গত বৃহস্পতিবার রাতেও ছেলের সঙ্গে কথা হয়। ছেলেও আমাদের খবর নেয়। তখন ছেলেকে বলেছিলাম, সাড়ে ছয় বছর ধরে অপেক্ষা করছি তোকে দেখবো বলে। সে আমাকে ফোন করেই বলত, মা তুমি কেমন আছ? কী করছ? বেশি পরিশ্রম কোরো না। সব সময় আমি ছেলের ফোনের অপেক্ষা করতাম, আর ছেলেও আমার ফোনের অপেক্ষা করত। এখন আর অপেক্ষা করতে হবে না।

ছোটবেলা থেকেই বাঁধনের বিমান বানানোর প্রতি আগ্রহী ছিল। ঢাকা বিজ্ঞান কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাসের পর যুক্তরাষ্ট্রে পড়তে যায় সে। কানসাসের উইচিটা বিশ্ববিদ্যালয়ে অ্যারোনটিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ভর্তি হয়। 

জেডএইচ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত