ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫ অাপডেট : ৪ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১:৩২

প্রিন্ট

দুরন্ত শিশুর যত্ন নেবেন কীভাবে?

দুরন্ত শিশুর যত্ন নেবেন কীভাবে?
জার্নাল ডেস্ক

বাড়িতে ছোট শিশু থাকলে সে দুষ্টুমি তো করবেই। তবে সারা ক্ষণই দৌড়-ঝাপ করলে আঘাত লেগে যেতে পারে। তবে নিরাময়ের ব্যবস্থাও থাকতে হবে। সন্তান খেলতে গিয়ে আঘাত পেলে কীভাবে তার যত্ন নেবেন ও মোকাবেলা করবেন জেনে নিন।

পড়ে যাওয়া: মাত্র হাঁটতে শিখেছে এমন শিশুদের এক জায়গায় রাখা কোনো ভাবেই সম্ভব নয়। আর সে হাঁটতে গিয়ে যখন-তখন আছাড় খায়।

এর ফলে অনেক সময় তার হাত-পা কেটে যায়। তাই বাড়িতে সব সময় রাখুন ব্যান্ডেজ, তুলা, গজ, অ্যান্টিসেপটিক লোশন ও ওষুধ।

এই সমস্যা কমানোর জন্য বাড়ির মেঝে খোলা ও শুকনো রাখুন। প্রয়োজনে মেঝেতে কার্পেট বা মাদুর দিয়ে রাখতে পারেন। আর সিঁড়িতে রেলিং রাখুন অবশ্যই।

আঙুলে চাপ: দরজা-জানালার কোনায় বা গাড়ির দরজায় আঙুলে চাপ লাগে অনেক শিশুর। দরজা-জানালা বন্ধের সময় শিশু হাত বা পা দিয়ে দিলো কিনা দেখে নিন।

শিশুর ঘরের দরজা-জানালা বন্ধই রাখুন। এভাবে আঘাত পেলে ক্ষতস্থানে বরফ দিন ও চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যান।

শরীরে কিছু ঢুকিয়ে ফেলা:

অনেক সময় নাক বা মুখের মধ্যে দিয়ে অনেক কিছুই ঢুকিয়ে ফেলে শিশু। এতে মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে, তাই খুব সতর্ক থাকুন। শিশুকে চোখে চোখে রাখুন।

মেঝে পরিষ্কার রাখুন, শিশুর হাতের কাছে পয়সা, পুঁতি, বোতাম জাতীয় কিছু রাখবেন না। এগুলো সহজেই নাক-মুখ দিয়ে গলায় যাতে পারে। এমন হলে দ্রুত চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যান।

বিষক্রিয়া: শিশুরা যে কোনো জিনিসেই মুখে দিতে বা গন্ধ পেতে চায়। তাই তাদের নাগালের মধ্যে রাসায়নিক দ্রব্য, কোনো ওষুধ বা কীটনাশক রাখবেন না।

কেউ না থাকলে শিশু সেসব যদি খেয়ে ফেলে তখন বড় বিপদ হতে পারে। এমন হলে দ্রুত শিশুকে কাছের হাসপাতালে নিয়ে যান।

যন্ত্রে হাত কাটা: বড়দের অসাবধানতার কারণে শিশুর কিছু কিছু বিপদ হয়। তাই ছুরি-কাঁচি, ব্লেড এসব ধারালো জিনিস শিশুর নাগালের মধ্যে রাখবেন না।

আর যদি বিপদ ঘটেই যায় তবে হালকা হলে বাড়িতে ফার্স্ট এড দিন, না হয় দ্রুত চিকিৎসকের কাছে যান।

আরএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত