ঢাকা, সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ১১ কার্তিক ১৪২৭ আপডেট : ১৯ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১০:৩৭

প্রিন্ট

যে কারণে ভোটের সময় পরিবর্তন

যে কারণে ভোটের সময় পরিবর্তন
ফাইল ফটো
জার্নাল ডেস্ক

ভোটারদের ঘুম থেকে উঠতে দেরি হয়- এমন তথ্যের ভিত্তিতে আসন্ন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচন এবং শূন্য ঘোষিত বগুড়া-১ ও যশোর-৬ আসনের উপ-নির্বাচনে ভোটগ্রহণ সকাল আটটার পরিবর্তে নয়টায় শুরু করা হবে বলে জানিয়েছেন কমিশনের (ইসি) সিনিয়র সচিব মো. আলমগীর।

গতকাল রোববার আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনের মিডিয়া সেন্টারে এসব নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার সময় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এই কথা বলেন।

সাধারণত জাতীয় ও স্থানীয় সরকারের নির্বাচনে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত একটানা ভোট নেয়া হয়। এর পরিবর্তে সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত কেন- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে সচিব বলেন, সকাল ৮টায় অনেকে ঘুম থেকে ওঠে না। এ জন্য ভোটারদের সুবিধার্থে ভোটগ্রহণ সকাল ৯টা থেকে শুরু করার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

সকাল আটটায় ভোট হলে ভোটার উপস্থিতি কম দেখা যায় জানিয়ে ইসি সচিব বলেন, বেলা বাড়ার সাথে সাথে ভোটার উপস্থিতি বাড়ে। এ জন্য কমিশন ভোট গ্রহণ শুরুর সময় ৮টার পরিবর্তে ৯টা করেছে বলেও জানান তিনি।

ইভিএমে ভোটের ক্ষেত্রে সহায়তাকারী হিসেবে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের এজেন্টরা ভোট দেয়ার গোপন কক্ষে অবস্থান করেছেন। এটা প্রতিরোধে এবার কী ধরনের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে- জানতে চাইলে সচিব বলেন, ‘এ ধরনের কাজ করার সুযোগ নাই। নির্বাচন করা একক কারও দায়িত্ব নয়। এটার দায়িত্ব নির্বাচন কমিশন, যারা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবেন সেসব প্রার্থী, তাদের সমর্থক, ভোটার, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী- সবার সমন্বিত দায়িত্ব। সবাই যদি যার যার দায়িত্ব পালন করেন, তাহলে এই ধরনের ঘটনা ঘটার সুযোগ নাই।’

চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনে সব দল অংশ নেবেন বলে আশা করেন ইসি সচিব। বলেন, ‘আমরা সব সময়ই শতভাগ আশাবাদী। আশা করতে তো কোনো সমস্যা নাই। আমরা তো আমাদের দিক থেকে কোনো কিছু কম রাখি না। সম্পূর্ণ শান্তিপূর্ণ, নিরপেক্ষ, সুষ্ঠু ভোট করার জন্য যা যা দরকার কমিশন তা করবে।’

এর আগে তফসিল ঘোষণা করে সচিব বলেন, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচন, বগুড়া-১ ও যশোর-৬ আসনের উপনির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ২৭ ফেব্রুয়ারি, বাছাইয়ের দিন ১ মার্চ, মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল দায়েরের সময় ২ থেকে ৪ মার্চ, আপিল নিষ্পত্তি ৫ থেকে ৭ মার্চ, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ৮ মার্চ, প্রতীক বরাদ্দ ৯ মার্চ এবং ভোটগ্রহণ ২৯ মার্চ।

বাংলাদেশ জার্নাল/ওয়াইএ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত