ঢাকা, শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০, ২৭ আষাঢ় ১৪২৭ আপডেট : ২৬ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২৮ মে ২০২০, ১৩:৫৩

প্রিন্ট

করোনার মধ্যে আবহাওয়া অফিসের নতুন তথ্য

বৃষ্টি হতে পারে আরও তিন দিন
জার্নাল ডেস্ক

করোনার কারণে স্থবির গোটা বিশ্ব। বাংলাদেশে সাধারণ ছুটি শেষে আগামী ৩১ মে থেকে খুলছে সকল অফিস। এর মধ্যেই আবহাওয়া অফিস জানাল নতুন তথ্য।

আবহাওয়া অফিসের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আগামী তিনদিন ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় প্রচুর বৃষ্টি হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে। সঙ্গে দমকা বা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। তবে সেটা একটানা না হয়ে থেমে থেমে হবে। এই পরিস্থিতিতে দেশের উপকূল অঞ্চলগুলোতে কম উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসও হতে পারে। এজন্য সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত এবং নদীবন্দরগুলোকে ২ নম্বর নৌ হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়, ঢাকা, ময়মনসিংহ, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রাজশাহী, রংপুর ও খুলনা বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। একইসঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টি হতে পারে।

আবহাওয়া অফিস জানায়, লঘুচাপের বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। উত্তর বঙ্গোপসাগর এবং তৎসংলগ্ন বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় বিরাজ করছে বায়ুচাপের তারতম্যের আধিক্য।

আবহাওয়াবিদ একেএম নাজমুল হক বলেন, এখন যে ঝড়-বৃষ্টি হচ্ছে সেটা আম্পান পরবর্তী স্ট্রং আবহাওয়ার কারণেই হচ্ছে। আগামী দুই থেকে তিনদিন এটা বলবৎ থাকবে। তবে গত দু'দিনের মতো এত স্ট্রং থাকবে না। কমে যাবে। আমরা এজন্যই সুনির্দিষ্টভাবে গত ২৫ মে থেকে সমুদ্রবন্দরে তিন নম্বর সতর্ক সংকেত রেখেছি। নদীবন্দরেও সতর্ক সংকেত রয়েছে। আম্পানের এ প্রভাবের কারণে বর্ষার প্রভাবটা দেশে উঠে আসতে পারছে না। এটা কেটে গেলে ৩১ মে দিকে উপকূলে এবং মধ্য জুনে দেশের অভ্যন্তরে চলে আসবে বর্ষা মৌসুম।

তিনি আরও বলেন, দেশের উত্তরাঞ্চল ও উত্তর-পূর্বাঞ্চলে বৃষ্টিপাত বেশি হচ্ছে। কক্সবাজার, রাঙামাটি, চট্টগ্রামে পাঁচদিন তীব্র রোদ ছিল। তাই সেখানে পাহাড় ধসের শঙ্কা নেই। তবে আমরা দৃষ্টি রাখছি।

বাংলাদেশ জার্নাল/কেআই

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত
best