ঢাকা, রোববার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২ আশ্বিন ১৪২৭ আপডেট : ৮ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ০৮ আগস্ট ২০২০, ১৩:০৩

প্রিন্ট

দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে দীর্ঘ যানজট

দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে দীর্ঘ যানজট
রাজবাড়ী প্রতিনিধি

ঈদের ছুটি শেষে আজও ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে যেতে কর্মমুখী মনুষের চাপ ও দীর্ঘ যানজট দেখা গেছে দৌলতদিয়া ফেরি ও লঞ্চঘাটে। এছাড়া দৌলতদিয়ায়-পাটুরিয়া নৌ-রুটে তীব্র স্রোতের কারণে ফেরি পারাপার ব্যবহত হচ্ছে। এতে আগের চাইতে দ্বিগুণেরও বেশি সময় লাগছে ফেরি পার হতে।

এদিকে দৌলতদিয়ায় রয়েছে ফেরি ও ঘাট সঙ্কট। ৬টি ঘাটের ৪টি ঘাট দিয়ে ফেরি পারাপার করা হচ্ছে, ফেরি চলছে ১৬টি। দৌলতদিয়া প্রান্তে ও গোয়ালন্দ মোড় এলাকায় মহাসড়কে ৭ থেকে ৮শ' যানবাহন ফেরি পারের অপেক্ষায় যানজটে থাকতে দেখা গেছে।

তবে প্রতিদিনের মতো বেলা যত গড়িয়ে যাবে যানবাহনের সংখ্যাও তত বাড়বে বলে জানান ঘাট কতৃপক্ষ। কিছু যানবাহন গতকাল দৌলতদিয়া ঘাটে এসেছে, কিন্তু ফেরি পার হতে দেখা গেছে আজকে।

অন্যদিকে ফেরি ও লঞ্চঘাটগুলোতে সামাজিক ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে দেখা যায়নি। চলাচল দেখে মনে হয়েছে করোনা নামক কোন মহামারী এসব অঞ্চলে নেই। করোনাসহ স্বাস্থ্যঝুঁকি বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন সচেতন মহল।

এদিকে ঘাটে অনিয়ম রোধে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে বিভিন্ন অংকে জরিমানা করা হচ্ছে। মামলা দায়ের করা হয়েছে ১০টি। যাত্রীদের যাতায়াত নির্বিঘ্ন রতেও পুলিশ কাজ করছে ঘাট এলাকায়।

ঈদের পর ১৯টি ফেরি দিয়ে যানবাহন পারাপার করা হলেও আজ শনিবার ১৬টি ফেরি দিয়ে যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে। ফেরির সংখ্যা কম ও ঘাট সঙ্কট এবং তীব্র স্রোতের কারণে যানজট লেগেই থাকছে দৌলতদিয়া প্রান্তের ঘাটগুলোতে। এ কয়দিনের চাইতে আজ বেশি যানবাহন দেখা গেছে মহসড়কে।

শনিবার সকাল থেকে দৌলতদিয়া প্রান্তে ঢাকামুখী যানবাহনের মধ্যে যাত্রীবাহী বাস, ব্যাক্তিগত প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাসের চাপ ছিল সবচেয়ে বেশি। চাপ রয়েছে মোটরসাইকেল আরোহীদেরও। তবে গণপরিবহনগুলোকে আগে ফেরি পার হতে দেয়া হচ্ছে।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কমর্তা মো. আশিকুর রহমান বলেন, কর্মমুখী মানুষদের যাত্রা নিরাপদ করতে তারা দৌলতদিয়া ঘাটে কাজ করছেন। যানবাহনগুলো ফেরি পারাপারে তারা বিভিন্ন রুট ব্যবহার করছেন।

বিআইডব্লিউটিসি কতৃপক্ষ জানান, ঈদের পর গত তিন-চারদিন ১৯টি ফেরি দিয়ে যানবাহন পারাপার করা হলেও ৩টি ফেরির যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দেয়ায় তা বন্ধ রয়েছে। বর্তমানে এ নৌ-রুটে ১৬টি ফেরি দিয়ে পারাপার করা হচ্ছে যানবাহন। দৌলতদিয়ায়-পাটুরিয়া নৌ-রুটে তীব্র স্রোত থাকায় ও ফেরির সংখ্যা কম থাকায় যানবাহন পারাপারে বেশি সময় লাগছে।

অন্যান্য সময়ের তুলনায় ঈদের পর কর্মমুখী মানুষ ও যানবাহনের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় দৌলতদিয়া ঘাট ও গোয়ালন্দ মোড় এলাকায় কয়েকশ' যানবাহন ফেরি পারেরর অপেক্ষায় রয়েছে। সময় যত গড়িয়ে যাবে যানবাহনের সংখ্যাও তত বাড়বে বলে জানায় ঘাট কতৃপক্ষ।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত