ঢাকা, রোববার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৫ ফাল্গুন ১৪২৭ আপডেট : ১৭ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ১৭:৩৫

প্রিন্ট

বিদ্যালয়ের নৈশপ্রহরী হত্যায় ঘোড়া সোহেলের ফাঁসি

নৈশপ্রহরী হত্যায় সোহেলের ফাঁসি
ফাইল ছবি

ফেনী প্রতিনিধি

ফেনী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নৈশপ্রহরী মো. সফি উল্যাহ (৬০) হত্যা মামলায় ঘোড়া সোহেল হাওলাদার (২০) নামে এক আসামির মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়াও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। রায় ঘোষণার সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন তিনি।

রোববার দুপুরে এ রায় ঘোষণা করেন জেলা ও দায়রা জজ ড. বেগম জেবুন্নেছা।

ফেনীর সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) হাফেজ আহম্মদ জানান, আলোচিত এ মামলার রায়ে আসামি সোহেলের মৃত্যুদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানার রায় দেন আদালত। গত বুধবার একই আদালতে যুক্তিতর্ক শুনানি শেষ হয়েছে। সফি উল্যাহ হত্যা মামলার অভিযুক্ত আসামি সোহেল ছাড়া রাব্বি, রনি ও সাকিবের বয়স কম বিধায় এ তিনজনের অভিযোগ শিশু আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।

আদালত সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ফেনী পৌরসভার বারাহীপুর গাজীক্রস রোডের একটি ভাড়া বাসায় বসবাস করতেন নৈশপ্রহরী সফি উল্যাহ (৬০)। তাঁর বাড়ি ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার বগাদানা ইউনিয়নের আলমপুর গ্রামে। ২০১৯ সালের ২৯ মে সন্ধ্যায় দুর্বৃত্তরা তাঁকে ঘরের মধ্যেই হত্যা করে এক লাখ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে যায়। তিনি তখন বাসায় একাই ছিলেন। পরে খবর পেয়ে ফেনী থানা-পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে। পরদিন নিহত সফি উল্যাহর ছেলে মো. মোতালিব হোসেন বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করে ফেনী মডেল থানায় হত্যা মামলা করেন। ওই মামলায় পুলিশ সোহেল হাওলাদার ও তিন কিশোরকে গ্রেপ্তার করে। পরে তাঁরা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ফেনী মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) হাবিবুর রহমান চৌধুরী বলেন, তদন্ত শেষে ২০২০ সালের ২৯ এপ্রিল আদালতে চারজনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র জমা দেন। আসামিদের মধ্যে তিনজন অপ্রাপ্তবয়স্ক হওয়ায় তাদের নামে ফেনীর শিশু আদালতে পৃথক মামলা করা হয়েছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/কেআই

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত