ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ৩১ বৈশাখ ১৪২৮ আপডেট : ৪ মিনিট আগে

প্রকাশ : ১১ এপ্রিল ২০২১, ১৭:৪২

প্রিন্ট

মামুনুল হককে নিয়ে বিতর্ক ‘ব্যক্তিগত বিষয়’

মামুনুল হককে নিয়ে বিতর্ক ‘ব্যক্তিগত বিষয়’
ছবি- প্রতিনিধি

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

সম্প্রতি হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হককে নিয়ে সৃষ্ট বিতর্ককে একান্ত তার ব্যক্তিগত বিষয় বলে মন্তব্য করেছেন সংগঠনটির আমির আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী।

রোববার বিকেল সোয়া ৪টায় চট্টগ্রামের দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদ্রাসায় হেফাজত ইসলামের সভা শেষ সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন।

এর আগে বেলা সাড়ে ১১টায় চট্টগ্রামের মাদ্রাসায় হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের শীর্ষ ৩৫ নেতা বৈঠকে বসেন।

বাবুনগরী বলেন, আজকের সভায় কোনো ব্যক্তিকে নিয়ে আলোচনা হয়নি। মামুনুল হককে নিয়ে যে বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে তা তার একান্ত ব্যক্তিগত। কাউকে অব্যাহতি দেয়ার কোনো কথা সভায় ওঠেনি।

বৈঠকে আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী সারাদেশে হেফাজত নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া 'মিথ্যা মামলা ও গ্রেপ্তার' বন্ধ করার দাবি জানান। এছাড়া লকডাউনের নামে মাদ্রাসা বন্ধেরও তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন তিনি। একইসঙ্গে ২৯ মে হেফাজতের উদ্যোগে হাটহাজারী মাদ্রাসায় ওলামা মাশায়াখ সম্মেলনের ঘোষণা দেন বাবুনগরী।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন মাওলানা জুনায়েদ বাবুনগরী, মাওলানা মহিবুল্লাহ বাবুনগরী, মাওলানা, জুনায়েদ আল হাবিব, মাওলানা সালাউদ্দিন নানুপুরি, মাওলানা আবদুল আউয়াল, মাওলানা, মীর ইদরিস, মাওলানা, আজিজুল হক ইসলামাবাদী, মাওলানা জাকারিয়া নোমান ফয়েজী, মাওলানা সাকাওয়াত হোসাইন রাজি প্রমুখ।

উল্লেখ্য, গত ২৬ থেকে ২৯ মার্চ চট্টগ্রামের হাটহাজারী, পটিয়া, ঢাকা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, সিলেটসহ দেশের কয়েকটি স্থানে সহিংসতার এ ঘটনায় অনন্ত ২০ জনের প্রাণহানি ঘটে। এসব ঘটনায় হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীদের আসামি করে মামলা হয়।

৩ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও এলাকায় একটি রিসোর্টে হেফাজত নেতা মামুনুল হককে এক নারীসহ ঘেরাও করে স্থানীয় লোকজন। তখন মামুনুল দাবি করেন, ওই নারী তার দ্বিতীয় স্ত্রী। এ নিয়ে দেশজুড়ে আলোচনা-সমালোচনা সৃষ্টির মধ্যেই হেফাজতের শীর্ষ নেতারা এ বৈঠকে বসেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত