ঢাকা, বুধবার, ১২ মে ২০২১, ২৯ বৈশাখ ১৪২৮ আপডেট : ৩৮ মিনিট আগে

প্রকাশ : ১৬ এপ্রিল ২০২১, ১৯:১১

প্রিন্ট

‘মাটিখেকোদের’ দুই ভেকু পুড়িয়ে দিলো প্রশাসন

‘মাটিখেকোদের’ দুই ভেকু পুড়িয়ে দিলো প্রশাসন
ছবি- প্রতিনিধি

ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি

ঢাকার ধামরাই উপজেলার সানোড়া এলাকায় সরকারি জমির প্রায় কোটি টাকার মূল্যের মাটি দীর্ঘদিন ধরে কেটে ইটভাটায় বিক্রি করছিল একটি চক্র। এ ঘটনায় এলাকাবাসীর সঙ্গে মাটিখেকোদের দফায় দফায় সংঘর্ষ, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছিলো।

এ খবর উপজেলা প্রশাসনের কাছে পৌঁছলে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে গিয়ে অবৈধভাবে সরকারি জমির মাটি কাটার কাজে ব্যবহৃত ২টি ভেকু পুড়িয়ে দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় উপস্থিত ছিলেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উপজেলা নির্বাহী অফিসার সামিউল হক ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) অন্তরা হালদার।

শুধু তাই নয়, মাটি বহন করার কাজে ব্যবহৃত ৫টি ট্রাকের গ্ল্যাস ভেঙে ফেলা হয়। ঘটনাটি বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে ঘটেছে। এ ঘটনায় এলাকাবাসী আনন্দ মিছিল করেছে।

দীর্ঘদিন ধরে এলাকাবাসী অবৈধভাবে সরকারি জমির মাটি কাটায় বাধা দিতে গিয়ে উল্টো হামলা শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

সরকারি জমির মাটি কেটে বিক্রি ও মাটিখেকোরা যাদের ছত্রছায়ায় থেকে এমন অপরাধ করেছে, তাদেরও আইনের আওতায় আনার অনুরোধ জানিয়েছে স্থানীয়রা।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, উপজেলার সানোড়া ইউনিয়নের সানোড়া মৌজায় প্রায় দুই একর সরকারি (ভিপি) নাল জমি রয়েছে। গত চার মাস ধরে সানোড়া গ্রামের লাল চাঁন, ভালুম গ্রামের আনোয়ার হোসেন, আব্দুর রহমান, আবুল হোসেন ও ইউসুফসহ অনেকেই সরকারি ওই জমির প্রায় কোটি টাকার মাটি ভেকু দিয়ে কেটে বিভিন্ন ইটভাটায় বিক্রি করে আসছে। তারা ব্যক্তিমালাকানাধীন জমির পাশাপাশি সরকারি জমি কেটে আসছিল।

গত বুধবার রাতে এলাকাবাসী রাস্তায় গাছ ফেলে সরকারি জমির মাটি কাটার প্রতিবাদ করে। এ সময় ওই মাটিখেকোরা ভাড়া করা সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে গেলে এলাকাবাসীর সাথে তাদের দফায় দফায় সংঘর্ষ, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়। গভীর রাতে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

কিন্তু পরদিন সকাল থেকে আবার সরকারি জমির মাটি কাটতে থাকে মাটিখেকো লাল চাঁন গংরা। মাটিখেকোদের হাত থেকে রক্ষা পেতে স্থানীয়রা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সামিউল হককে বিষয়টি জানান। বেলা ১২টার দিকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সামিউল হক ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) অন্তরা হালদার ঘটনাস্থলে যায়। পরে মাটিখেকোরা তাদের দলবল নিয়ে পালিয়ে যায়। এরপর ২টি ভেকু পুড়িয়ে দেয়া হয়। এছাড়াও মাটি বহনকারি ৫টি ট্রাকের গ্ল্যাস ভেঙে ফেলে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

স্থানীয়রা জানায়, গত কয়েক মাস ধরে সরকারি জমির মাটি কেটে বিক্রি করছে মাটি লাল চান গংড়া। তাদের বাধা দিতে গিয়ে উল্টো হামলার শিকার হয়েছে এলাকাবাসী।

এ বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অপিসার সামিউল হক বলেন, সরকারি (ভিপি) জমির মাটি দীর্ঘদিন ধরে ভেকু দিয়ে কেটে বিভিন্ন ইটভাটায় বিক্রি করছিল তারা। এছাড়াও ব্যক্তি মালিকানাধীন জমির মাটি কেটে শ্রেণী পরিবর্তন করছিলো। মাটি কাটার কাজে ব্যবহৃত ২টি ভেকু আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে। সেইসঙ্গে মাটি বহন করা পাচটি ট্রাকের সামনের গ্ল্যাস ভেঙে ফেলা হয়েছে। মাটিখেকোরা আর ছাড় পাবে না। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত