ঢাকা, শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ১১ আষাঢ় ১৪২৮ আপডেট : ৫ মিনিট আগে

প্রকাশ : ০৫ মে ২০২১, ১২:২৯

প্রিন্ট

রায়হান হত্যা: এসআই আকবরসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট

রায়হান হত্যা: এসআই আকবরসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট
সংগৃহীত ছবি।

নিজস্ব প্রতিবেদক

সিলেটে পুলিশ ফাঁড়িতে যুবক রায়হান আহমদ হত্যার ৭ মাসের মাথায় আদালতে অভিযোগপত্র জমা দিয়েছে তদন্তকারী সংস্থা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

বুধবার বেলা ১১টায় বন্দরবাজার ফাঁড়ির তৎকালীন ইনচার্জ উপপরিদর্শক (এসআই) আকবরসহ ৬ জনকে আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র দেওয়া হয়।

পিবিআই সিলেটের পুলিশ সুপার খালেদ-উজ-জামান বলেন, আদালতে অভিযোগপত্র জমা হয়েছে। এতে প্রধান অভিযুক্ত করা হয়েছে ওই ফাঁড়ির তৎকালীন ইনচার্জ এসআই আকবরকে। এছাড়া চার্জশিটে একজন কথিত সাংবাদিক ছাড়াও ছয়-সাতজন পুলিশ কর্মকর্তা ও সদস্যকে অভিযুক্ত করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

দুপুর ১২টায় পিবিআই সিলেট অফিসে প্রেসব্রিফিং করে মামলার পুরো তদন্ত কার্যক্রম ও আসামিদের ব্যাপারে জানানো হবে।

অভিযুক্তরা হচ্ছেন, বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ির তৎকালীন ইনচার্জ এসআই আকবর হোসেন ভূঁইয়া, টুআইসি এসআই হাসান আলী, এএসআই আশেকে এলাহী, কনস্টেবল হারুনুর রশিদ, কনস্টেবল টিটু চন্দ্র দাস ও আব্দুল্লাহ আল নোমান। এদের মধ্যে নোমান ছাড়া সবাই কারাগারে রয়েছেন।

কোর্ট ইন্সপেক্টর প্রদীপ কুমার দাস বলেন, বহুল আলোচিত রায়হান হত্যা মামলার অভিযোগপত্র পিবিআই পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে। করোনার কারণে আদালতের কার্যক্রম ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে চলার কারণে অভিযোগপত্র আদালতে দাখিল করা হচ্ছে না। আদালতের কার্যক্রম শুরু হওয়ার পর পরই অভিযোগপত্র আদালতে দাখিল করা হবে। তবে এর ভেতরে পিবিআই দেওয়া অভিযোগপত্রে কোনো অসঙ্গতি রয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হবে। কোনও অসঙ্গতি পেলে তা পিবিআইকে সংশোধনের জন্য জানানো হবে।

প্রসঙ্গত গত বছরের ১১ অক্টোবর রাতে সিলেট নগরের আখালিয়ার এলাকার বাসিন্দা রায়হান আহমদকে নগরের কাষ্টঘর সুইপার কলোনি থেকে বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে ধরে এনে নির্যাতন চালানো হয়। এতে তিনি গুরুতর আহত হলে পরদিন ভোরে তাকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। সেখানে সকাল ৭টা ৫০ মিনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় ১২ অক্টোবর রায়হানের স্ত্রী তাহমিনা আক্তার বাদী হয়ে কোতোয়ালি মডেল থানায় পুলিশ হেফাজতে মৃত্যু আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/এমএস

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত