ঢাকা, সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২ আশ্বিন ১৪২৮ আপডেট : ৩ মিনিট আগে

চট্টগ্রামে করোনার ভারতীয় ভেরিয়েন্ট শনাক্ত

  চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

প্রকাশ : ১৪ জুন ২০২১, ১৭:৫৯

চট্টগ্রামে করোনার ভারতীয় ভেরিয়েন্ট শনাক্ত
প্রতীকী ছবি
চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

চট্টগ্রামে করোনাভাইরাসের ভারতীয় ভেরিয়েন্ট ডেল্টা শনাক্ত হয়েছে। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) জেনেটিক ইন্জিনিয়ারিং এন্ড বায়োটেকনোলজি বিভাগ এবং আইসিডিডিআরবি’র এক যৌথ গবেষণায় এ ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত করেছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের জেনেটিক ইন্জিনিয়ারিং এন্ড বায়োটেকনোলজি বিভাগের ফাংশনাল জিনোমিক্স এন্ড প্রোটিওমিক্স ল্যাবরেটরির প্রধান গবেষক প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আল ফোরকান।

ড. আল ফোরকান বলেন, আমরা চট্টগ্রাম বিভাগের ৭টি কোভিড-১৯ শনাক্তকরণ ল্যাবের হাসপাতাল থেকে ৪২টি নমুনা সংগ্রহ করে তার ভেরিয়েন্ট বিশ্লেষণ করেছি। এর মধ্যে ভারতীয় ২টি, নাইজেরিয় ৩টি, যুক্তরাজ্যের ৪টি এবং দক্ষিণ আফ্রিকার ৩৩টি ভেরিয়েন্ট পাওয়া গেছে।

‘ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত দুইজন রোগীর কেউই সম্প্রতি ভারতে যাননি এবং তাদের জানামতে ভারতফেরত কারো সংস্পর্শেও আসেননি। মে মাসের শেষের দিকে তাদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এজন্য আমরা ধারণা করছি চট্টগ্রামে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টের কমিউনিটি সংক্রমণ প্রাথমিকভাবে শুরু হয়েছে।’

তিনি বলেন, চট্টগ্রামে দক্ষিণ আফ্রিকার ভ্যারিয়েন্ট প্রভাব বিস্তার করলেও বিভিন্ন দেশ থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টের সংক্রমণ ক্ষমতা অত্যাধিক। অতি দ্রুত বিষয়টিকে গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা না করলে ভয়াবহ অবস্থা সৃষ্টি হতে পারে।

এদিকে চট্টগ্রামে মাত্র একদিনের ব্যবধানে করোনা রোগী এক লাফে ঠেকেছে ৬৭ থেকে ২১৫ জনে। একদিন আগে করোনা শনাক্তের সংখ্যা ছিল ৬৭। এর আগের চারদিনও করোনা রোগীর সংখ্যা ছিল অনেক কম। ওই চরদিন রোগীর সংখ্যা ছিল যথাক্রমে ১১৪, ১১৯, ১২৯ ও ১৫৮।

এছাড়া করোনায় মৃত্যুভয়ও বাড়ছেই। ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে আরও ৩ করোনা রোগীর। একদিন আগেও দুই করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছিল। এর আগের তিরদিনও মারা গিয়েছিলেন যথাক্রমে ৩ জন, ২ জন ও ২ জন।

চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের সরকারি-বেসরকারি ১১টি ল্যাবে করোনার ৯১৫ নমুনা পরীক্ষা করা হয়। বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেসে (বিআইটিআইডি) ১৯৭ নমুনা পরীক্ষায় ১২ জন, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) ল্যাবে ৮০ নমুনা পরীক্ষায় ১৭ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ২৮০ নমুনা পরীক্ষায় ১১৪ জন, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় (সিভাসু) ল্যাবে ১০৫ নমুনা পরীক্ষায় ১১ জন, জেনারেল হাসপাতালের রিজিওনাল টিবি রেফারেল ল্যাবরেটরিতে (আরটিআরএল) ২০ নমুনা পরীক্ষায় ৮ জন, চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল ল্যাবে ১১ নমুনা পরীক্ষায় ৩ জন, শেভরন ক্লিনিক্যাল ল্যাবরেটরিতে ৮৩ নমুনা পরীক্ষায় করে ১১ জন, ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাবে ১০০ নমুনা পরীক্ষায় ২৫ জন, মেডিকেল সেন্টার হাসপাতালে ১৬ নমুনা পরীক্ষা করে ৫ জন, এপিক হেলথ কেয়ার ল্যাব ১৮ নমুনা পরীক্ষায় ৯ জন করোনা পজিটিভ হন।

কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ল্যাবে ৫ নমুনা পরীক্ষায় কারো করোনা শনাক্ত হয়নি। এদিন পটিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নমুনা পরীক্ষা করা হয়নি। নতুন আক্রান্তদের মধ্যে ১২১ জন নগরের এবং ৯৪ জন উপজেলার।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত