ঢাকা, সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ১১ শ্রাবণ ১৪২৮ আপডেট : ৭ মিনিট আগে

প্রকাশ : ১৬ জুন ২০২১, ১৮:০০

প্রিন্ট

মুক্তিযুদ্ধের সময়ের হ্যান্ড গ্রেনেড উদ্ধার

মুক্তিযুদ্ধের সময়ের হ্যান্ড গ্রেনেড উদ্ধার
ছবি- প্রতিনিধি

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

কুষ্টিয়ার খোকসায় এক বীর মুক্তিযোদ্ধার বাড়ি থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় একটি হ্যান্ড গ্রেনেড উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বুধবার দুপুরে উপজেলার শিমুলিয়া ইউনিয়নের বসোয়া গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা মৃত আব্দুর রহিম বিশ্বাসের বাড়ি থেকে পুলিশ পরিত্যক্ত অবস্থায় হ্যান্ড গ্রেনেডটি উদ্ধার করে। গ্রেনেডটি ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের সময়কার বলে পুলিশ এবং স্থানীয়দের ধারণা করছে।

বীর মুক্তিযোদ্ধার বৃদ্ধা স্ত্রী রিজিয়া খাতুন জানান, মাস কয়েক আগে বাড়ির উঠানে বহু বছর আগে লাগানো একটি শিমুল গাছ বিক্রি করে দেয়া হয়। গাছটি কাটার সময় মাটির নিচে গাছের শিকড়ের কাছ থেকে শ্রমিকরা হ্যান্ড গ্রেনেডটি উদ্ধার করেন। তিনি সেটি তার মুক্তিযোদ্ধা স্বামীর স্মৃতিচিহ্ন হিসেবে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করে নিজের শোবার ঘরে রেখে দেন।

কিন্তু গ্রেনেডটি রাখার পর তার মনের মধ্যে ভয়ের সঞ্চার হলে তিনি নিজেই বুধবার খোকসা থানায় খবর দেন। খবর পেয়ে খোকসা থানা পুলিশ গিয়ে গ্রেনেডটি নিয়ে স্থানীয় বসোয়া বাজারের পাশে মাঠের মধ্যে বাঁশ দিয়ে ঘিরে রেখে আসে। সেখানে লাল রঙয়ের পতাকা টাঙিয়ে দেয়া হয়।

এ ব্যাপারে খোকসা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ আশিকুর রহমান জানান, হ্যান্ড গ্রেনেডটি খুবই ছোট আকৃতির। তাতে মরিচা পড়ে গেছে। তবে পুলিশ প্রাথমিকভাবে এটিকে সক্রিয় হিসেবে বিবেচনায় নিচ্ছে। ইতোমধ্যে ঢাকায় পুলিশের বোমা ডিসপোজাল ইউনিটকে খবর দেয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আপাতত হ্যান্ড গ্রেনেডটি পুলিশ এবং স্থানীয় চৌকিদারের পাহারায় নিরাপদে রাখা হয়েছে। গ্রেনেডটি মুক্তিযুদ্ধের সময়কার হতে পারে।

স্থানীয় বীর মুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমান জানান, ওই এলাকায় তাদের অস্থায়ী একটি ক্যাম্প ছিল। সেসময় মুক্তিযোদ্ধারা এ ধরণের হ্যান্ড গ্রেনেড ব্যবহার করতেন। গ্রেনেডটি স্বাধীনতা যুদ্ধের সময়কার বলে তিনি ধারণা করেছেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত