ঢাকা, সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ১১ শ্রাবণ ১৪২৮ আপডেট : ১৯ মিনিট আগে

প্রকাশ : ১৭ জুন ২০২১, ০৩:১১

প্রিন্ট

মনোহরদীতে গ্রাহকদের বিদ্যুৎ বিলের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

মনোহরদীতে গ্রাহকদের বিদ্যুৎ বিলের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

মনোহরদী (নরসিংদী) প্রতিনিধি

মনোহরদীতে পল্লী বিদ্যুতের দুই কর্মচারীর বিরুদ্ধে গ্রাহকদের বকেয়া বিদ্যুৎ বিলের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

পল্লী বিদ্যুৎ মনোহরদী জোনাল অফিসের সাবেক মিটার রিডার জামাল উদ্দীনের ও বর্তমান এক রিডার এমএ আজিজের বিরুদ্ধে বকেয়া বিল আদায়ের নামে দুই গ্রাহকের ৬ মাসের বিদ্যুৎ বিল আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে।

জানা গেছে, পল্লী বিদ্যুতের মনোহরদী অফিসের তরফ থেকে বকেয়া বিল আদায়ের লক্ষ্যে মিটার রিডার জামাল উদ্দীন হাতিরদীয়ার কাশেম মার্কেটের ১৪ মাসের বকেয়া বিলের টাকা আদায় করেন। পরে অফিসে তিনি ১০টি বিলের টাকা জমা দিয়ে বাকী ৪ মাসের বিদ্যুত বিলের টাকা আত্মসাত করেন।

এ বিষয়ে আবুল কাশেম নামের সংশ্লিষ্ট গ্রাহকের পক্ষ থেকে একটি লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়।

একই অভিযোগ মিলেছে অফিসের আরো এক মিটার রিডার এম এ আজিজের বিরুদ্ধে। তিনি গত ফেব্রুয়ারি মাসে আকানগর গ্রামের রফিকুল নামের এক বাণিজ্যিক বিদ্যুৎ গ্রাহকের বকেয়া বিলের ৬৯৫১ টাকা আদায় করে অফিসে জমা করেননি বলে অভিযোগ মিলেছে।

অভিযুক্ত মিটার রিডার জামাল উদ্দীনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, তিনি এখন মনোহরদীতে নেই। তার বর্তমান কর্মস্থল গাজীপুরে।

তিনি তার বিরুদ্ধে অভিযোগের ব্যাপারে টেলিফোনে বলেন, কাজ করলে ভুল হতেই পারে। অতএব যদি এমন হয়ে থাকে তো তিনি গ্রাহকের টাকা ফেরত দেবেন। একই বক্তব্য অপর মিডার রিডার অভিযুক্ত এম এ আজিজের। তিনিও অভিযোগের ব্যাপারে টেলিফোনে বাংলাদেশ জার্নালকে জানান, ভুল হতেই পারে। এ রকম হয়ে থাকলে বিলের টাকা জমা দিয়ে দেবেন।

বিলের টাকা জমা দিতে ভুল হয় কিন্তু একই বিলের টাকা দুবার জমা হবার ভুল হয় না কেন, জানতে চাইলে সুস্পষ্ট কোন জবাব দিতে পারেননি তিনি।

এ বিষয়ে পল্লী বিদ্যুত মনোহরদী জোনাল অফিসের ডিজিএম রেজাউল করিম বলেন, এসাবেক মিটার রিডার জামাল উদ্দীনের বিরুদ্ধে আজ (বুধবার) তিনি একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছেন। এ ব্যাপারে খোঁজ নেয়া হচ্ছে। সত্যতা পেলে গ্রাহকের বিলের টাকা আদায় করে দেয়ার ব্যবস্থা করা হবে।

বাংলাদেশ জার্নাল/আর

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত