ঢাকা, বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ১৩ শ্রাবণ ১৪২৮ আপডেট : ১ মিনিট আগে

চট্টগ্রামে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পাচ্ছে ৬৪৯ পরিবার

  চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

প্রকাশ : ১৮ জুন ২০২১, ০০:৩২

চট্টগ্রামে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পাচ্ছে ৬৪৯ পরিবার

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

চট্টগ্রামে ১৩টি উপজেলার ৬৪৯টি ভূমিহীন ও গৃহহীন অসহায় পরিবার প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পাচ্ছে। বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মমিনুর রহমান জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান।

আগামী ২০ জুন প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এ কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন। এর আগে সারাদেশের ন্যায় চট্টগ্রাম জেলায় ১ম পর্যায়ে ১ হাজার ৪৪৪টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে ২ শতাংশ জমিসহ সম্পূর্ণ সরকারি অর্থায়নে ঘর প্রদান করা হয়েছে।

জেলা প্রশাসক মমিনুর রহমান জানান, চট্টগ্রাম জেলার রাঙ্গুনিয়া উপজেলায় ৫০টি, পটিয়া উপজেলায় ৩০টি, চন্দনাইশ উপজেলায় ২৭টি, সাতকানিয়া উপজেলায় ১০টি, লোহাগাড়া উপজেলায় ১৫০টি, বাঁশখালী উপজেলায় ১৪টি, কর্ণফুলী উপজেলায় ৫টি, বোয়ালখালী উপজেলায় ২০টি, রাউজান উপজেলায় ২৪৮টি, হাটহাজারী উপজেলায় ১০টি, আনোয়ারা উপজেলায় ৫০টি, মীরসরাই উপজেলায় ২৫টি, সীতাকুণ্ড উপজেলায় ১০টি সহ সর্বমোট ৬৪৯টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে ঘর দেয়া হবে। এসব ঘরে ২টি বেডরুম, ১টি রান্না ঘর, বারান্দা, বাথরুম। এছাড়াও ১০টি ঘরের জন্য একটি করে ডিপ টিউবওয়েল।

প্রথম পর্যায়ে একটি ঘর নির্মাণকাজ সম্পন্ন করতে ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। দ্বিতীয় পর্যায়ের জন্য ১ লাখ ৯০ হাজার টাকা প্রতিটি ঘরের জন্য খরচ হয়েছে। ১ম পর্যায়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী চলতি বছরের ২৩ জানুয়ারি সারাদেশে ৬৯ হাজার ৯০৪টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে ২ শতাংশ জমিসহ ঘর বরাদ্দ প্রদান কার্যক্রম উদ্বোধন করেন।

তিনি জানান, দুই ক্যাটাগরিতে ঘর দেয়া হচ্ছে। যাদের ভূমি ও ঘর দুটিই নেই। আর যাদের জমি আছে কিন্তু থাকার ঘর নেই। যাদের ভূমি ও ঘর দুটিই নেই এমন ৯ হাজার ১২৪ জনের তালিকা তৈরি করা হয়েছে। এর মধ্যে সরকারিভাবে ২ হাজার ৯৯ জন ও বেসরকারিভাবে ১২৩ জনকে ঘর বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। আগামী এক বছরের মধ্যে আমরা সবাইকে ঘর করে দেবো। জমি আছে ঘর নেই এমন ৭ হাজার ৪৭৮ জনের তালিকা তৈরি করেছি।

এ সময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ নাজমুল আহসান ও অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সুমনী আক্তার সহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/আর

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত