ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ১৪ শ্রাবণ ১৪২৮ আপডেট : ১১ মিনিট আগে

লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতির গাড়িতে হামলা

  লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি

প্রকাশ : ২১ জুন ২০২১, ১৮:০৯

লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতির গাড়িতে হামলা
ছবি- প্রতিনিধি

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি

লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকুর গাড়িতে হামলা চালানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ সময় গাড়ির কাঁচ ভাঙচুর করা হয়।

সোমবার দুপুরে লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলার তোরাবগঞ্জ ইউপি নির্বাচন চলকালীন সময়ে তোরাবগঞ্জ বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার ঘটনায় তোরাগঞ্জ ইউপি নির্বাচনে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ও বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান ফয়সল আহমেদ রতনকে দায়ী করেছেন জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু। এ সময় তার সাথে থাকা ৮ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছে বলে জানান তিনি।

পিংকু জানান, কমলনগরের তোরাবগঞ্জ ইউপি নির্বাচন চলাকালীন সময়ে তিনি ওই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের অফিসে যান। অফিসটি ভোটকেন্দ্র থেকে প্রায় ৯শ’ মিটার দূরত্বে ছিলো। এ সময় স্বতন্ত্র প্রার্থী ফয়সাল আহম্মেদ রতন তার লোকজন নিয়ে হামলা চালায়। হামলাকারীরা তাকেসহ অনান্য আওয়ামী লীগ নেতাকে দলীয় কার্যালয়ে অবরুদ্ধ করে রাখে। পুরে পুলিশ গিয়ে তাদের উদ্ধার করে।

হামলাকারীরা তার গাড়ির কাঁচ ভাঙচুর করে এবং তাদের দলীয় নেতাদের ৬টি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে বলে অভিযোগ গোলাম ফারুক পিংকুর।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, শুরু থেকেই পিংকু তোরাবগঞ্জ ইউনিয়নের নৌকার প্রার্থী মির্জা আশরাফুল জামাল রাসেলের পক্ষে প্রচার-প্রচারণা চালিয়েছেন। রাসেলের প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান রতন (ঘোড়া)। সকালে নির্বাচনী কেন্দ্রের পরিস্থিতি পরিদর্শনে আওয়ামী লীগ নেতা পিংকু দুপুরে তোরাবগঞ্জে আসেন। এ সময় হামলার শিকার হন তিনি।

তবে স্বতন্ত্র প্রার্থী ফয়সল আহমেদ রতন বলেন, আমি ভোট কেন্দ্রগুলোতে ব্যস্ত ছিলাম। ঘটনার সময় আমি ওই কেন্দ্রে ছিলাম না। কারা আওয়ামী লীগ সভাপতি পিংকুর গাড়িতে হামলা চালিয়েছে, তা আমার জানা নেই।

ভোট চালাকালীন সময়ে কেন্দ্রগুলোতে তিনি নৌকার পক্ষে অবস্থান নিয়ে প্রভাবিত করেছেন বলে পাল্টা অভিযোগ করেন স্বতন্ত্র প্রার্থী রতন।

কমলনগর থানার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোসলেহ উদ্দিন বলেন, গাড়ি ভাঙচুরের ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত