ঢাকা, শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৩ আশ্বিন ১৪২৮ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে

যশোরে শ্বশুরবাড়িতে যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু

  যশোর প্রতিনিধি

প্রকাশ : ২৬ জুলাই ২০২১, ২০:১০

যশোরে শ্বশুরবাড়িতে যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু
ছবি- প্রতিনিধি
যশোর প্রতিনিধি

যশোরের অভয়নগরে শ্বশুরবাড়িতে ঈদে বেড়াতে গিয়ে শরিফুল ইসলাম (৩৫) নামে এক যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। সোমবার শংকরপাশা গ্রামের শাহিনপাড়ায় শ্বশুর আবুল হোসেনের (হোসনা) বাড়ি থেকে মৃতদেহ উদ্ধার করে অভয়নগর থানা পুলিশ। মৃত শফিকুল ইসলাম নাভারনের জামতলা গ্রামের হামিদ মোড়লের ছেলে।

শফিকুলের স্ত্রী শিল্পী বেগমের ভাষ্য, ‘আমার সাথে ৮ বছর আগে শফিকুলের বিয়ে হয়। বিয়ের পরে আমার স্বামী মালয়েশিয়া চলে যায়। তারপর মাঝে-মধ্যে দেশে আসে। আমাদের ছয় বছরের একটা ছেলে রয়েছে। আমার সন্তানকে নিয়ে আমি আমার বাপের বাড়িতে থাকি। পাঁচ মাস আগে আমার স্বামী দেশে ফিরে আসে।’

শিল্পী বলেন, ‘ঈদের পরের দিন আমাদের বাড়িতে এসেছিল। আমি তাকে এখানে ব্যবসা-বাণিজ্য করার কথা বলি। কিন্তু সে তার বাড়িতে চলে যেতে চায়। এ নিয়ে আমাদের মধ্যে মনোমালিন্য হয়। রোববার রাতে আমরা যখন ঘুমিয়ে পড়েছি তখন আমার স্বামী ঘরের আড়ার সাথে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। সকালে টের পেয়ে আমি তাকে নামাই এবং দেখি সে মারা গেছে।’

তবে এলাকাবাসী ভিন্ন কথা বলছে। তাদের ভাষ্য, স্বামী বিদেশে থাকায় শিল্পী বাবার বাড়িতে থাকেন। ১৩ বছরের প্রবাসজীবনে শরিফুল ১০ ভরি সোনা পাঠান স্ত্রী শিল্পীর কাছে। অনেক টাকাপয়সাও পাঠান। দেশে আসার পর সোনা ও টাকার হিসাব চান শফিকুল। এখান থেকে শুরু হয় দুজনের মধ্যে মনোমানিল্য।

ওই গ্রামের বাসিন্দা রাসেল শেখ বলেন, ‘রাতে মারা গেল, অথচ আশপাশের লোকজন জানতে পারে সকাল ৮টার দিকে। বাড়িটিতে গিয়ে দেখা যায়, লাশ বিছানায় রয়েছে। কিন্তু মৃতের শ্বশুর ও শ্যালক বাড়ি থেকে পালিয়ে গেছে। তাছাড়া এই পরিবারের নামে বিভিন্ন ধরনের অপবাদ ও অভিযোগ রয়েছে। আমাদের কাছে বিষয়টি আত্মহত্যা নয়, হত্যা বলে মনে হয়েছে।’

ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী বলেন, ‘এই মৃত্যুর ঘটনা রহস্যজনক মনে হচ্ছে। আমি মনে করি সঠিক তদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত দোষীরা শাস্তি পাক।’

অভয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম শামীম হাসান বলেন, ‘সকালে আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যেয়ে দেখি মৃতদেহ বিছানায় শোয়ানো অবস্থায় আছে। তবে এটা হত্যা নাকি আত্মহত্যা, তা ময়নাতদন্তে রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত বলা যাবে না।’

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত