ঢাকা, শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৩ আশ্বিন ১৪২৮ আপডেট : ৭ মিনিট আগে

বিধিনিষেধের ৫ম দিনে গ্রেপ্তার ৫৫৫

  নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ : ২৭ জুলাই ২০২১, ১৯:২৯

বিধিনিষেধের ৫ম দিনে গ্রেপ্তার ৫৫৫
ছবি: সংগৃহীত
নিজস্ব প্রতিবেদক

বিধিনিষেধের ৫ম দিনে অকারণে বাইরে বের হওয়ায় রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে ৫৫৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)। এছাড়া ২৩৬ জনকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা করা হয়েছে ৪ লাখ ৮৩ হাজার ৯৭৫ টাকা। অন্যদিকে ট্রাফিক বিভাগ ৪৯৭টি গাড়ির বিরুদ্ধে জরিমানা করা হয়েছে ১১ লাখ ৭৩হাজার টাকা।

সংক্রমণ রোধে সরকার কঠোর বিধিনিষেধ দিয়ে মানুষকে ঘরে থাকতে বললেও মানছে না অনেকেই। কারণে অকারণে মানুষ রাস্তায় বের হয়েছেন।

মঙ্গলবার ডিএমপির (মিডিয়া এন্ড পাবলিক রিলেশনস) অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (এডিসি) ইফতেখায়রুল ইসলাম বাংলাদেশ জার্নালকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এডিসি ইফতেখায়রুল ইসলাম বলেন, প্রথম ধাপের লকডাউন শিথিল হবার পর ৫ম দিনে সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ডিএমপির ৮টি বিভাগের রমনা, লালবাগ, মতিঝিল, ওয়ারী, তেজগাঁও, মিরপুর, গুলশান ও উত্তরা এলাকা থেকে ৫৫৫ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে অকারণে ও নানা অজুহাতে ঘর থেকে বের হওয়ায় ও বিধিনিষেধে প্রতিষ্ঠান খোলা রাখায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ২৩৬ জনকে ৪ লাখ ৮৩ হাজার ৯৭৫ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এছাড়া ৪৯৭টি গাড়ির বিরুদ্ধে জরিমানা করা হয়েছে ১১ লাখ ৭৩হাজার টাকা।

গণপরিবহনগুলো না চললেও প্রাইভেট কার, মাইক্রোবাস, জরুরি সেবা সংস্থার গাড়ি এবং খোলা দেখা গেছে। রাজধানীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর চেকপোস্ট ও কঠোর ভাবেই দেখা গেছে। এতে ঢাকার প্রবেশ পথগুলোতে দেখা গেছে দীর্ঘ যানজট।

এদিকে মঙ্গলবার সকাল থেকে রাজধানীর মোহাম্মদপুর, ধানমন্ডি, জিগাতলা, সিটি কলেজ মোড়, রাসেল স্কয়ার মোড়, গণভবন চেকপোস্ট, গাবতলী এলাকা, মাতুয়াইল, শনির আখড়া ঘুরে দেখা যায়, চেকপোস্টগুলোতে পুলিশ সদস্যরা দায়িত্ব পালন করছেন ঠিকই, তবে রাস্তায় চলছে শত শত গাড়ি। বিধি নিষেধ ছিল অনেকটাই উপেক্ষিত। প্রতিদিন জরিমানা বাড়লেও ঘর থেকে বের হচ্ছে নানা অজুহাতে। এছাড়াও বহু মানুষ রাস্তায় বের হয়েছেন যাদের বেশিরভাগই বলছেন, হাসপাতালে রোগী দেখতে যাবে, কেউ বা আবার বলছে খাবার দিতে যাবে।

এ বিষয়ে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) মিরপুর বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মাহাতাব উদ্দিন বাংলাদেশ জার্নালকে বলেন, বিধিনিষেধে আমরা মানুষকে ঘরে থাকার অনুরোধসহ অকারণে বের হলে জরিমানা করছি। এরপরও কেউ কেউ বের হচ্ছেন।

ঈদের আগে করোনার উচ্চ সংক্রমণের মধ্যেও চলমান কঠোর বিধিনিষেধ ২৩ জুলাই পর্যন্ত শিথিল করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছিলো সরকার। তবে ঈদের পর আবারও ১৪ দিনের জন্য কঠোর বিধিনিষেধ দেওয়া হয়।

এতে বলা হয় ২৩ জুলাই সকাল ৬টা থেকে ৫ আগস্ট রাত ১২টা পর্যন্ত ফের কঠোর বিধিনষেধ আরোপ করা হয়। এ সময়ে সর্বাবস্থায় জনসাধারণকে সতর্কাবস্থায় থাকা এবং মাস্ক পরিধানসহ স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে অনুসরণ করতে হবে।

এর আগে, সোমবার অকারণে বাইরে বের হওয়ায় রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে ৫৬৬ জনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)। এছাড়া ১৬৪ জনকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা করা হয়েছে এক লাখ ২৬ হাজার ২৫০ টাকা। অন্যদিকে ট্রাফিক বিভাগ ৪৪৩টি গাড়ির বিরুদ্ধে জরিমানা করা হয়েছে ১০ লাখ ২১হাজার টাকা।

বাংলাদেশ জার্নাল/এফজেড/এমএ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত