ঢাকা, শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৩ আশ্বিন ১৪২৮ আপডেট : ৩২ মিনিট আগে

পাহারাদার বসিয়ে চলছে বিক্রি

  নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ : ২৭ জুলাই ২০২১, ২১:২০  
আপডেট :
 ২৮ জুলাই ২০২১, ১৫:৪৪

পাহারাদার বসিয়ে চলছে বিক্রি
ফাইল ছবি
নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনা সংক্রমণরোধে সরকার ঘোষিত চলমান বিধিনিষেধে দোকানপাট বন্ধ রাখার নির্দেশনা থাকলেও দোকানিরা আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের চোখ ফাঁকি দিয়ে অর্ধেক সার্টার খুলে পণ্য বিক্রি করছেন। পুলিশ আসার সাথে সাথে সার্টার বন্ধ করে ফেলছেন তারা। আর চলে যাওয়ার পর ফের শুরু হয় বিক্রি। শুধু তাই নয় হকাররাও চা-বিস্কুট, পান নিয়ে ঘুরে বেড়িয়েছে।

মঙ্গলবার রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

নগরীর শুক্রাবাদ এলাকার বিভিন্ন জায়গায় সরকারের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে অনেকেই দোকান খুলে রেখেছেন। কেউ দোকানের পুরো সার্টার, কেউ আবার অর্ধেক সার্টার খুলে দেদারসে বিক্রি করছে। এদের মধ্যে কেউ আবার পাহারাদারও বসিয়েছেন। মোবাইল কোর্ট বা প্রশাসনের আনাগোনা দেখলেই সর্তক বার্তায় বন্ধ হয়ে যায় দোকানের সার্টার।

মাসুদ নামে এক মুদি দোকানদার বলছেন, কি করবো ভাই! পরিবার আছে, অন্তত খেয়েতো বাঁচতে হবে। তাই নিজেই নজরদারি করে অর্ধেক সার্টার খুলে রেখেছি। প্রশাসন আসলে যেনো দ্রুত বন্ধ করতে পারি।

তোফায়েল নামে এক দোনকারতো আলাদা করে পাহারাদারই বসিয়েছেন। তার ভাষ্য, আমার দোকানে বিক্রি ভালো। একা সামলাতে পারি না, তারমধ্যে পুলিশের ভয়, কখন এসে আবার জরিমানা করে বসে। তাই একজন পাহারাদার রেখেছি সতর্ক থাকার জন্য।

এদিকে কারণে-অকারণেও ঘর থেকে রাস্তায় বের হয়েছেন সাধারণ মনুষ। গণপরিবহন ছাড়া চলেছে প্রায় সব ধরনের গাড়ি। বিশেষ করে সড়কে ব্যক্তিগত গাড়ি বেশি দেখা গেছে।

মূলত ঈদের ছুটি শেষে ব্যাংক, বিমাসহ বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠান খুলে যাওয়ায় সড়কে যান ও জনচাপ বেড়েছে। সে সঙ্গে বিভিন্ন চেকপোস্টে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতাও দেখা গেছে।

অন্যদিকে মঙ্গলবার ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের বিভিন্ন চেকপোস্টে আটক হয়েছেন ৫৫৫ জন। ২৩৬ জনকে ৪ লাখ ৮৩ হাজার ৯৭৫ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্র্যম্যমাণ আদালত।

এছাড়া অকারণে রাস্তায় বের হওয়া ৪৯৭টি গাড়িকে মোট ১১ লাখ ৭৩ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ডিএমপি ট্রাফিক পুলিশ।

বাংলাদেশ জার্নাল/আরএ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত