ঢাকা, শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৯ আশ্বিন ১৪২৮ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে

উপসচিবের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ শিক্ষিকার

  নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ : ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২০:৫৬

উপসচিবের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ শিক্ষিকার
ছবি প্রতীকী
নিজস্ব প্রতিবেদক

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পরিচয়। মেসেঞ্জারে যোগাযোগ। একপর্যায়ে প্রেমের সম্পর্ক। অতঃপর বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলেন সরকারের গুরুত্বপূর্ণ একটি মন্ত্রণালয়ের এক উপসচিব। পরে বিয়ের কথা বললেই দেয়া হয় হুমকি-দামকি।

একজন স্কুলশিক্ষিকা এমন অভিযোগ দিয়ে বুধবার ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে (২) মামলার আবেদন করেন। আবেদনটি গ্রহণ করেন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মুহাম্মদ হাবিবুর রহমান সিদ্দিকী। একই সঙ্গে আগামী সাত কার্যদিবসের মধ্যে পিবিআই প্রধানকে অনুসন্ধান প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশ দেন।

এসব বিষয়ের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন সংশ্লিষ্ট ট্রাইব্যুনালের সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর জাহাঙ্গীর হোসেন হাওলাদার।

মামলার আরজিতে স্কুলশিক্ষিকা হিসেবে পরিচয় দেয়া ওই নারী বলেন, ২০১৮ সালের ২১ ডিসেম্বর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উপসচিবের সাথে তার পরিচয় হয়। এরপর থেকে মেসেঞ্জার ও মুঠোফোনে তাদের নিয়মিত যোগাযোগ হতো। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পরে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলেন ওই সরকারি কর্মকর্তা।

আরজিতে স্কুলশিক্ষিকা বলেন, ২০২০ সালে ২২ ডিসেম্বর ওই সরকারি কর্মকর্তাকে বিয়ের জন্য অনুরোধ করেন তিনি। কিন্তু বিবাহিত হওয়ার কথা বলে তার প্রস্তাব প্রত্যাখান করেন উপসচিব। এ নিয়ে বাড়াবাড়ি করলে দেখে নেয়ারও হুমকি দেন তিনি। এছাড়া শিক্ষিকাকে চাকরিচ্যুত, এমন কী মিথ্যা মামলার হুমকিও দেয়া হয়।

মামলার আরজিতে ওই নারী আরও জানান, গত বছর ২৩ ডিসেম্বর সংশ্লিষ্ট থানা শিক্ষা কর্মকর্তা তাকে কার্যালয়ে ডেকে নিয়ে ওই উপসচিবের সঙ্গে যোগাযোগ করতে নিষেধ করেন। অন্যথায় চাকরিচ্যুত করার হুমকি দেন। বিষয়টি সুষ্ঠু সমাধানের জন্য উপসচিবকে গত ৮ জুন লিগ্যাল নোটিশ পাঠান ওই নারী। নোটিশের জবাব না দিয়ে উল্টো তাকে হুমকি দেন। পরে তিনি অভিযোগ করতে থানায় যান। কিন্তু থানা কর্তৃপক্ষ মামলা না নিয়ে তাকে ট্রাইব্যুনালে মামলা করার পরামর্শ দেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/এমআর/ওয়াইএ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত