ঢাকা, রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ২ কার্তিক ১৪২৮ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে

সকালে ধর্ষণের শিকার তরুণী, রাতেই ভেঙে গেলো বিয়ে

  দিনাজপুর প্রতিনিধি

প্রকাশ : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:২২  
আপডেট :
 ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:৩৫

সকালে ধর্ষণের শিকার তরুণী, রাতেই ভেঙে গেলো বিয়ে
প্রতীকী ছবি
দিনাজপুর প্রতিনিধি

আত্মীয়-স্বজন আসতে শুরু করেছে রাতে। বিয়ে হবে তাই ধুমধাম করে। আয়োজন হচ্ছিলো কনের বাড়িতে। কিন্তু বিয়ের দিন সকালেই ধর্ষণের শিকার হন কনে। লজ্জায় ভুক্তভোগীর পরিবারের লোকজন বিষয়টি শুরুতে ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা চালায়। পরে রাতে জানাজানি হলে গেলে বিয়ে ভেঙে যায়।

গত শনিবার এমনই ঘটনা ঘটেছে দিনাজপুর জেলার পার্বতীপুর উপজেলায়। কনের বাড়ির লোকজন লোকলজ্জায় বাড়ি থেকে বের হচ্ছে না। আজ সোমবার ভুক্তভোগী পরিবারটি ধর্ষকের সব্বোর্চ শাস্তি দাবি করেন।

এ ঘটনার ভুক্তভোগীর মা গত রোববার দুপুরে থানায় ধর্ষণের মামলা করেন। ওইদিনই ধর্ষণের অভিযোগে আব্দুর রহমান নামে একজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এদিকে ধর্ষণের শিকার তরুণীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

জানা যায়, আব্দুর রহমান বাবলু শনিবার সকাল ১০টার দিকে ওই তরুণীকে রান্না করে দেয়ার জন্য তার বাড়িতে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করেন। তরুণীর চিৎকারে প্রতিবেশীরা গিয়ে বাবলুকে আটক করে। তবে রাতেই ওই তরুণীর বিয়ে হওয়ার কথা ছিল বলে সারাদিন বিষয়টি চেপে রাখার চেষ্টা করেন কনের পরিবার। কিন্তু বিষয়টি রাতে জানাজানি হলে বর বিয়ে করতে আসবে না বলে সাফ জানিয়ে দেয়। এতে ভেঙে যায় তরুণীর বিয়ে।

ভুক্তভোগীর দাদা জানান, শনিবার রাতে তার নাতনীর বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। ধর্ষণের ঘটনা প্রকাশ হওয়ায় বিয়ে ভেঙে গেছে।

ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর আলম বলেন, গ্রামবাসী ধর্ষককে আটক করলে তিনি ধর্ষণের কথা স্বীকার করেন। পরে সে অসুস্থ বোধ করায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে রোববার সকালে পুলিশ বাবলুকে গ্রেপ্তার করে।

পার্বতীপুর থানার ওসি ইমাম জাফর বলেন, ধর্ষণের ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। ধর্ষককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন। পরে মামলা দায়ের করেই আদালতে পাঠানো হয়।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত