ঢাকা, সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ আপডেট : ৩৩ মিনিট আগে

সাবেক প্রেমিকার প্রেমিককে ডেকে নিয়ে খুন, যুবক গ্রেপ্তার

  গাজীপুর প্রতিনিধি

প্রকাশ : ১৪ অক্টোবর ২০২১, ০৩:০৭

সাবেক প্রেমিকার প্রেমিককে ডেকে নিয়ে খুন, যুবক গ্রেপ্তার
বামে আসামি ডানে হাবিবুল বাশার জয়
গাজীপুর প্রতিনিধি

গাজীপুর মেট্টোপলিটনের কাশিমপুর থানার কবিরপুর এলাকার বহুল আলোচিত হাবিবুল বাশার জয় হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন ও আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পিবিআই গাজীপুর।

বুধবার (১৩ অক্টোবর) দুপুরে পিবিআই গাজীপুরের এসপি মোহাম্মদ মাকছুদের রহমান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মামলার ঘটনার সাথে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত আসামি তানহা জুবায়েরকে (২৫) গত ১০ অক্টোবর রাত অনুমান সাড়ে ৩টার দিকে গাজীপুরের বাড়ইপাড়া এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ঘটনার বর্ণনায় বলা হয়, গত ১১ সেপ্টেম্বর দুপুরে ঢাকার আশুলিয়া থানার কবিরপুর গ্রামের রহিছ উদ্দিনের ছেলে হাবিবুল বাশার জয়কে (২০) ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের কাশিমপুর থানাধীন তেতুইবাড়ী এলাকায় ইমপ্রেস টেলিফিল্ম লি. (চ্যানেল আই) এর বাংলোর সামনে পাকা সড়কের ওপর আহত অবস্থায় পাওয়া যায়। এরপর আশেপাশের লোকজন তাকে ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মেমোরিয়াল হাসপাতালে ভর্তি করলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হত। এ ঘটনায় নিহতের ভাই কাশিমপুর থানায় দুই জনের নামে মামলা করেন।

মামলাটি গাজীপুর মেট্টোপলিটন পুলিশ প্রায় দুই মাস তদন্ত করে। এ সময় পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের নির্দেশে পিবিআই গাজীপুরকে তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, অপর আসামি মোসা. নিলুফা ইয়াসমিন ঝুমুরের সাথে হাবিবুল বাশার জয়ের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। কিন্তু হঠাৎ করে এক বছর আগে নিলুফার সাথে সজিব হোসেনের প্রেমের সম্পর্ক হয়। ঘটনার আগেরদিন ১০ সেপ্টেম্বর তারিখে সজীব হোসেন জুবায়েরকে ম্যাসেঞ্জারে ফোন দিয়ে আশাপুরে যেতে বলেন। সজিব হোসেনের কথায় বিকাল সাড়ে পাঁচটায় সজিব এবং তার সহযোগী আসামিরা আশাপুরে একত্র হয়। সজীব তার সহযোগীকে জানায় যে, সে ঝুমুর নামের একটি মেয়েকে ভালোবাসে। কিন্তু জয় নামের একটি ছেলে ঝুমুরকে প্রায়ই বিরক্ত করে, তাই জয়কে মারধর করতে চায়।

পরে সবাই এক সাথে হয় গত ১১ অক্টোবর জয়কে মারধর করার জন্য আশাপুরে বসে পরিকল্পনা করেন। পরিকল্পনা অনুযায়ী সজিব হোসেন ঠিকানা পরিবহনের একটি বাসে করে বাড়ইপাড়া বাসস্ট্যান্ড যান। সজিবের কথামত পূর্বে বাড়ইপাড়া বাসস্ট্যান্ডে বসে থাকে তার সহযোগীরা। এরপর তারা কৌশলে একটি বাসে উঠায় জয়কে। বাসের ভেতরে মারধর করে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের কাশিমপুর তেতুইবাড়ী এলাকায় ইমপ্রেস টেলিফিল্ম লি. (চ্যানেল আই) এর বাংলোর সামনে পাকা সড়কের ওঁপর চলন্ত বাস থেকে ফেলে দেয় জয়কে। পরে আশপাশের লোকজন গুরুতর আহত জয়কে শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মেমোরিয়াল হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করেন। এরপর ১৩ অক্টোবর চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে পিবিআই'র পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাকছুদের রহমান বলেন, প্রেমের সম্পর্কের জের ধরেই এই ঘটনা ঘটেছে। পিবিআই দ্রুততার সাথে আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে। গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়। ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন করলে আসামির দুইদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত