ঢাকা, সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ৩ কার্তিক ১৪২৮ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে

সাম্প্রদায়িক সহিংসতা: নিন্দা ও ক্ষোভ বিভিন্ন সংগঠনের

  নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ : ১৪ অক্টোবর ২০২১, ২২:০১

সাম্প্রদায়িক সহিংসতা: নিন্দা ও ক্ষোভ বিভিন্ন সংগঠনের
নিজস্ব প্রতিবেদক

কুমিল্লার ঘটনাকে কেন্দ্র করে দেশের বিভিন্ন এলাকায় সাম্প্রদায়িক সহিংসতার প্রতিবাদে তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ জানিয়েছে বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক সংগঠন।

বৃহস্পতিবার পৃথক পৃথক বিবৃতিতে এমন প্রতিক্রিয়া জানানো হয়। একই সঙ্গে সহিংসতায় জড়িত দুর্বৃত্তদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়ার দাবিও করেছেন সংগঠনগুলোর নেতারা।

এক যৌথ বিবৃতিতে সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলনের নেতারা বলেন, দেশের অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করার অপচেষ্টার অংশ হিসেবে এরা সাম্প্রতিক সময়ে কক্সবাজারের রামু, ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়া, গোপালগঞ্জ, কুমিল্লা, সুনামগঞ্জসহ বিভিন্ন এলাকায় ঠুনকো অজুহাত দাঁড় করিয়ে সংখ্যালঘুদের বাড়িঘরে অগ্নিসংযোগ, লুন্ঠন, অত্যাচার চালিয়ে দেশে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির অপচেষ্টা চালিয়েছে। এবারের শারদীয় দুর্গাপূজোয়ও তাদের জঘন্য ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে কুমিল্লায় একটি পূজামন্ডপে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে সাম্প্রদায়িকতাকে উস্কানি দেবার অপচেষ্টা আমাদের কাছে প্রতীয়মান হয়েছে।

বিবৃতিতে নেতারা আরও বলেন, আমরা মনে করি সরকারের বিভিন্ন সংস্থা এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে প্রকৃত দোষীদের চিহ্নিত করবেন। একই সাথে কুমিল্লার ঘটনাকে কেন্দ্র করে সামাজিক মাধ্যমসহ সারাদেশে উস্কানি দিয়ে সংখ্যালঘু, আদিবাসী সম্প্রদায়ের ধর্মীয় উৎসব, শারদীয় দুর্গা পূজা, জানমাল, সম্পদের উপর আক্রমণ, অত্যাচার-নিপীড়নের অপচেষ্টা করা হচ্ছে। দেশের ইতিহাসকে মুছে দেয়ার গভীর ষড়যন্ত্র কতিপয় সুবিধাবাদী মহল তাদের হীন স্বার্থ চরিতার্থ করার অপচেষ্টায় লিপ্ত হচ্ছে বলে আমাদের কাছে প্রতীয়মান হচ্ছে।

পৃথক বিবৃতিতে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের নেতারা কুমিল্লার ঘটনার সাথে যারা প্রত্যক্ষে-পরোক্ষে জড়িত তাদের সবাইকে অনতিবিলম্বে গ্রেপ্তার শাস্তি নিশ্চিতের দাবি জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে সংগঠনের সভাপতি সাবেক সাংসদ ঊষাতন তালুকদার, ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ড. নিমচন্দ্র ভৌমিক ও নির্মল রোজারিও এবং সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট রাণা দাশগুপ্ত বলেন, শারদীয় দুর্গোৎসবকে বানচাল করে গোটা দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টির লক্ষ্যে মহাষ্টমীর দিনে কুমিল্লাসহ বিভিন্ন পূজামন্ডপসমূহে ঘৃণ্য সাম্প্রদায়িক হামলা চালিয়েছে প্রতিক্রিয়াশীল সাম্প্রদায়িক শক্তি।

এদিকে সাম্প্রদায়িক সহিংসতার ঘটনার প্রতিবাদে তীব্র নিন্দা, ক্ষোভ ও প্রতিবাদ জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ। উদ্বেগ, ক্ষোভ ও আশংকা প্রকাশ করে পরিষদের সভাপতি ডা. ফওজিয়া মোসলেম ও সাধারণ সম্পাদক মালেকা বানু বলেন, এটি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি হুমকির মুখে ফেলতে কোন কুচক্রি মহলের ষড়যন্ত্র। ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরোর এক সভায় নেতারা বলেন, সাম্প্রদায়িক পরিস্থিতি সৃষ্টির কৌশল হিসাবে কিছু গোষ্ঠী বার বার দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি করছে। বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি এই সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানাচ্ছে।

পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেননের সভাপতিত্বে সভায় সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা, পলিটব্যুরোর সদস্য আনিসুর রহমান মল্লিক, সুশান্ত দাস,মা হমুদুল হাসান মানিক প্রমুখ।

এছাড়া কুমিল্লাসহ বিভিন্ন স্থানে পূজা মণ্ডপে হামলার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ ও তীব্র নিন্দা জানিয়েছে ছাত্র ইউনিয়নসহ বিভিন্ন সংগঠন।

বাংলাদেশ জার্নাল/এমএম/এমআর

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত