ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে

তথ্যের উৎস হিসেবে সরকার-গণমাধ্যমের ওপর কম আস্থাশীল তরুণরা

  ​নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ : ১৯ নভেম্বর ২০২১, ২১:২০

তথ্যের উৎস হিসেবে সরকার-গণমাধ্যমের ওপর কম আস্থাশীল তরুণরা
ছবি: সংগৃহীত
​নিজস্ব প্রতিবেদক

সঠিক তথ্যের উৎস হিসেবে সরকার, বিজ্ঞানী, ধর্মীয় সংগঠন এবং জাতীয় গণমাধ্যমের ওপর বয়স্কদের তুলনায় কম আস্থাশীল বাংলাদেশের তরুণরা। বিশ্ব শিশু দিবসের আগে প্রকাশিত ইউনিসেফ ও গ্যালাপের নতুন এক আন্তর্জাতিক জরিপে এমন তথ্যই উঠে এসেছে।

বৃহস্পতিবার সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ইউনিসেফ বাংলাদেশ জানিয়েছে- ‘দ্য চেঞ্জিং চাইল্ডহুড’ শীর্ষক জরিপটি বিশ্ব সম্পর্কে একাধিক প্রজন্মের কাছে তাদের দৃষ্টিভঙ্গি এবং বর্তমান সময়ে একজন শিশু হওয়ার অভিজ্ঞতা কেমন সে বিষয়ে নিয়ে করা প্রথম জরিপ।

বাংলাদেশি তরুণদের দৃষ্টিভঙ্গি এবং জরিপে অন্তর্ভুক্ত অন্য দেশগুলোতে তাদের সমবয়সীদের দৃষ্টিভঙ্গির পার্থক্য সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ আরো যেসব দিক উঠে এসেছে সেগুলো হলো:

যারা জলবায়ু পরিবর্তন সম্পর্কে সচেতন তাদের মধ্যে, নাইজেরিয়া (৯৪ শতাংশ) ও জিম্বাবুয়ের (৯১ শতাংশ) পাশাপাশি বাংলাদেশ (৯১ শতাংশ) শীর্ষ স্থানীয় দেশগুলোর একটি, যেখানে তরুণরা চায় জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে সরকার দৃঢ় পদক্ষেপ নিক। জলবায়ু পরিবর্তন সম্পর্কে সচেতন তরুণদের মধ্যে গড়ে প্রায় তিন-চতুর্থাংশ তরুণ বিশ্বাস করে যে, এটি মোকাবিলায় সরকারের গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নেয়া উচিত।

জরিপে বলা হয়, রাজনৈতিক নেতাদের জন্য শিশুদের কথা শোনা খুবই গুরুত্বপূর্ণ এমন মতপ্রকাশকারী তরুণের সংখ্যার দিক থেকে বাংলাদেশের অবস্থান নিচের দিক থেকে দ্বিতীয়। বাংলাদেশ শীর্ষ চারটি দেশের মধ্যে রয়েছে যেখানে তরুণরা বিশ্বাস করে যে, শিশুদের অর্থনৈতিক অবস্থা তাদের মা-বাবার চেয়ে ভালো হবে। এছাড়াও তরুণ জনগোষ্ঠীর ৮১ শতাংশ বিশ্বাস করে যে, শিক্ষার অবস্থা আগের প্রজন্মের তুলনায় উন্নত হয়েছে, যা বাংলাদেশকে শীর্ষ পাঁচটি দেশের মধ্যে স্থান করে দিয়েছে।

বাংলাদেশি তরুণদের ১৯ শতাংশ জানান, তারা প্রায়শই উদ্বেগ ও শঙ্কা বোধ করেন এবং ১৪ শতাংশ বলেন, তারা প্রায়শই বিষণ্নতা বোধ করেন বা কিছু করার প্রতি কম আগ্রহ বোধ করেন।

জরিপে বয়স্কদের তুলনায় প্রায় দ্বিগুণেরও বেশি তরুণ-তরুণী প্রতিদিন ইন্টারনেট ব্যবহার করার কথা জানায়, যা উল্লেখযোগ্যমাত্রায় প্রজন্মগত পার্থক্যের দিক থেকে বাংলাদেশকে তৃতীয় স্থানে জায়গা করে দিয়েছে।

জরিপের জন্য বাংলাদেশসহ বিশ্বের সব অঞ্চল এবং আয় সীমার ২১টি দেশের বয়সভিত্তিক দুটি গ্রুপের (১৫-২৪ বছর বয়সী এবং ৪০ বছর বা তার বেশি বয়সী) ২১ হাজারের বেশি মানুষের মতামত নেয়া হয়।

এ বিষয়ে বাংলাদেশে ইউনিসেফের প্রতিনিধি মি. শেলডন ইয়েট বলেন, তরুণদের মতামত গুরুত্বপূর্ণ। জরিপে একটি বিষয় পরিষ্কারভাবে উঠে এসেছে, তা হলো- তরুণদের কথা বলার জন্য, তাদের উদ্বেগ প্রকাশের জন্য এবং প্রত্যাশার কথা জানানোর জন্য তাদেরকে আরও জায়গা তৈরি করে দিতে হবে।

বাংলাদেশ জার্নাল/একে/এমজে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত