ঢাকা, সোমবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২২, ১০ মাঘ ১৪২৮ আপডেট : ১ মিনিট আগে

৪৭ বছর পর চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভায় নৌকা প্রার্থীর জয়

  চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি

প্রকাশ : ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৫:৩১  
আপডেট :
 ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:৩৯

৪৭ বছর পর চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভায় নৌকা প্রার্থীর জয়
বিজয়ী নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আজহাজ্ব মো. মোখলেসুর রহমান
চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি

মুক্তিযুদ্ধের পর ১৯৭৪ সালে সর্বশেষ আওয়ামী লীগের কোনো নেতা চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন। এরপর পেরিয়ে গেছে ৪৭টি বছর। জাতীয় নির্বাচন কিংবা উপজেলা নির্বাচনে নৌকা জয় পেলেও অধরা ছিল পৌরসভা নির্বাচনে। অবশেষে প্রায় চার যুগ পর চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভায় মেয়র পদে জয়লাভ করলেন নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আজহাজ্ব মো. মোখলেসুর রহমান।

এর আগে গত ২ নভেম্বর প্রথমবারের মতো ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও সীমানা জটিলতার কারণে তখন স্থগিত হয়ে যায়। এরপর মঙ্গলবার চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মোখলেসুর রহমান ৪৮ হাজার ৬১৩ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ভোট বর্জন করা আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী সামিউল হক লিটন মোবাইল ফোন প্রতীকে পেয়েছেন ২১ হাজার ৬১৪ ভোট। অপর দুই মেয়র প্রার্থীর মধ্যে নারিকেল গাছ প্রতীকে বিএনপি সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থী নজরুল ইসলাম পেয়েছেন ১২ হাজার ৪৫৫ ভোট। আর জগ প্রতীক নিয়ে ২ হাজার ১৮০ ভোট পেয়েছেন সাবেক শিবির নেতা ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান।

মঙ্গলবার রাতে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোতাওয়াক্কিল রহমান এই ফলাফল ঘোষণা করেন।

তিনি জানান, ১৫টি ওয়ার্ডের ৭২টি ভোটকেন্দ্রে প্রথমবারের মতো ইভিএম’র মাধ্যমে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে মোট বৈধ ভোটের সংখ্যা ৮৪ হাজার ৮৬২ এবং বাতিল ভোটের সংখ্যা ৪৪২। ৪ মেয়র পদপ্রার্থী ছাড়াও ১৫টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ৯৮ জন এবং সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ২১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

এদিকে ভোটগ্রহণ চলাকালে বিকেল ৩টায় বিভিন্ন অনিয়ম-কারচুপির অভিযোগে ভোট বর্জন করেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী বহিষ্কৃত জেলা যুবলীগ সভাপতি সামিউল হক লিটন।

এর আগে, গত ২ নভেম্বর চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার ভোট অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ২৬ অক্টোবর সীমানা জটিলতায় হাইকোর্টে একটি রিটের প্রেক্ষিতে ভোটগ্রহণ স্থগিত করে নির্বাচন কমিশন। পরে হাইকোর্টের নির্দেশে মঙ্গলবার ভোটগ্রহণের দিন নির্ধারণ করে নির্বাচন কমিশন। এবার পৌরসভায় মোট ভোটার ছিলেন ১ লাখ ৪৫ হাজার ৪৯৭ জন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ৭১ হাজার ৪৩২ জন এবং নারী ভোটার ৭৪ হাজার ৬৫ জন।

বাংলাদেশ জার্নাল/এএম

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত