কর্মীদের গ্রেপ্তার ও হয়রানি অভিযোগ তৈমুরের

প্রকাশ : ১৫ জানুয়ারি ২০২২, ১৯:৫৩ | অনলাইন সংস্করণ

  জার্নাল ডেস্ক

ছবি- সংগৃহীত

নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনের মেয়র প্রার্থী তৈমুর আলম খন্দকার অভিযোগ করে বলেছেন, ভোটের আগমুহূর্তেও নেতা-কর্মীদের গ্রেপ্তার ও হয়রানি করা হচ্ছে। 

তিনি বলেন, পুলিশ বিএনপির নেতাকর্মীদের হেফাজতের মামলায় ও মাদক মামলায় গ্রেপ্তার করছে। এভাবে সুষ্ঠ ভোটের পরিবেশ নষ্ট হলে প্রধানমন্ত্রীর ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হবে।   

শনিবার বেলা ১২টায় নারায়ণগঞ্জ শহরের মাসদাইর নিজ বাসায় এ সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন।

তৈমুর বলেন, শুক্রবার রাতে তার দলের কর্মী সমর্থকসহ ১০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এর আগে ১৭ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। পুলিশ বিএনপির নেতাকর্মীদের হেফাজতের মামলায় ও মাদক মামলায় গ্রেপ্তার করছে। 

তিনি আরও বলেন, ‘নির্বাচনের মাঠে যাই হোক না কেন, মাঠে থাকব, গ্রেপ্তার হলে হব। মরে গেলেও নির্বাচন চালিয়ে যাব। আমি ভোটকেন্দ্র ঝুকিপূর্ণ মনে করছি না, পুলিশের আচরণকে ঝুঁকিপূর্ণ মনে করছি, প্রশাসনের আচরণকে ঝুঁকিপূর্ণ ও নির্বাচন কমিশনের আচরণকে ঝুঁকিপূর্ণ বলে মনে করছি।

তিনি ভোটকেন্দ্রে সিসি ক্যামেরা স্থাপন এবং নির্বাচন কমিশন, ডিসি ও এসপিদের নিরপেক্ষ থেকে সুষ্ঠভাবে ভোট গ্রহণের আহ্বান জানান।

এসময় অবাধ, সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ ভোটের স্বার্থে গ্রেপ্তার ও হয়রানি বন্ধে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন স্বতন্ত্র এ মেয়র প্রার্থী।  

সংবাদ সম্মেলনে তৈমুরের প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামাল, বিএনপি নেতা নজরুল ইসলাম, জামাল উদ্দিন কালু সহ বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/এমএস