ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯ আপডেট : ২০ মিনিট আগে

স্পেন-নেদারল্যান্ডেও যাবে সরাসরি জাহাজ

  জার্নাল ডেস্ক

প্রকাশ : ২৬ এপ্রিল ২০২২, ১৯:৫০

স্পেন-নেদারল্যান্ডেও যাবে সরাসরি জাহাজ
প্রতীকী ছবি
জার্নাল ডেস্ক

ইউরোপের দেশ স্পেন ও নেদারল্যান্ডসের সঙ্গেও চট্টগ্রাম বন্দর থেকে সরাসরি জাহাজ চলাচল শুরু হচ্ছে। এর আগে ইতালির সঙ্গে চট্টগ্রাম বন্দর থেকে জাহাজ চলাচল শুরু হয়।

চট্টগ্রাম বন্দরের চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল এম শাহজাহান জানিয়েছেন, আগামী মে মাসের তৃতীয় সপ্তাহে সুইজারল্যান্ডভিত্তিক একটি কোম্পানি তিনটি জাহাজ দিয়ে এ কার্যক্রম শুরু করবে।

জাহাজগুলো স্পেনের বার্সেলোনা বন্দর এবং নেদারল্যান্ডসের রটারড্যাম বন্দর থেকে চট্টগ্রামে যাতায়াত করবে।

সুইজারল্যান্ডভিত্তিক কোম্পানি ‘কমোডিটি সাপ্লাইজ এজি’ তাদের কন্টেইনারবাহী তিন জাহাজ ‘এমভি স্পেসিয়া’, ‘এমভি এন্ড্রোমিডা জে’ এবং ‘এমভি মিউজিক’ দিয়ে এ যোগাযোগ শুরু করছে। বাংলাদেশে প্রতিষ্ঠানটির স্থানীয় এজেন্ট ‘রিলায়েন্স শিপিং অ্যান্ড লজিস্টিকস লিমিটেড’।

রিলায়েন্স শিপিংয়ের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ রাশেদ বলেন, আমরা স্পেন ও নেদারল্যান্ডসের বন্দরের সঙ্গে চট্টগ্রামে সরাসরি জাহাজ চলাচলের অনুমতি পেয়েছি। ২২ মে প্রথম জাহাজটি বার্সেলোনা থেকে ছাড়বে। পরে রটারড্যাম বন্দর থেকেও ছাড়বে।

চট্টগ্রাম বন্দর থেকে আগে বাংলাদেশের কন্টেইনারবাহী জাহাজ ইউরোপে যেত শ্রীলঙ্কার কলম্বো বন্দর, সিঙ্গাপুর বন্দর, মালয়েশিয়ার পোর্ট কেলাং ও তানজুং পেলাপাস বন্দর হয়ে। ছোটো জাহাজে করে প্রথমে সেসব বন্দরে নেওয়ার পর বুকিং পাওয়ার ওপর নির্ভর করে বড় জাহাজে উঠিয়ে ইউরোপীয় গন্তব্যে পাঠানো হত। তাতে সময় বেশি লাগত। সঙ্গে নির্ধারিত সময়ে পণ্য পৌঁছানো নিয়ে শঙ্কা থাকত।

রিলায়েন্স শিপিংয়ের চেয়ারম্যান রাশেদ বলেন, আগে ট্রান্সশিপমেন্ট বন্দরগুলোর কারণে পণ্য পৌঁছাতে দেরি হত, খরচও পড়ত বেশি। নতুন সার্ভিস চালু হলে সে সমস্যা আর থাকবে না।

ইতালির সাথে চট্টগ্রাম বন্দরের সরাসরি জাহাজ চলাচল করছে। সেই অভিজ্ঞতার ভিত্তিতে স্পেন ও নেদারল্যান্ডসের সাথে সরাসরি জাহাজ চালানোতে অন্য কোম্পানি এগিয়ে এসেছে।

রাশেদের ভাষ্য, সরাসরি যোগাযোগ চালু হলে বার্সেলোনাতে ২০ থেকে ২১ দিনের মধ্যে পণ্য পৌঁছানো যাবে। আগে ট্রান্সশিপমেন্ট বন্দর হয়ে জাহাজে করে পণ্য পৌঁছাতে ৩৫ থেকে ৪০ দিন পর্যন্ত সময় লাগত।

পোশাক রপ্তানিকারকদের প্রতিষ্ঠান বিজিএমইএ এর প্রথম সহ-সভাপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম বলেন, আমাদের দীর্ঘদিনের দাবি ছিল বন্দরের সক্ষমতা বাড়ানোর সঙ্গে সেখানে যাতে বড় জাহাজ প্রবেশ করানো যায়। সম্প্রতি বন্দরে বড় জাহাজ ভেড়ানোর প্রস্তুতিও চলছে। একইসঙ্গে ইউরোপের বিভিন্ন দেশের সাথে সরাসরি জাহাজ সার্ভিস চালু হচ্ছে।

তাতে পোশাক রপ্তানিকারকদের জন্য আশা জাগছে জানিয়ে তিনি বলেন, রপ্তানিকারকরা একসঙ্গে অনেক বেশি পণ্য ইউরোপের দেশগুলোতে পাঠাতে পারবে। আগে ট্রানজিট টাইম বেশি লাগত। এখন তা কমে যাবে। এর কারণে ইউরোপে বাংলাদেশের ব্যবসায়ীদের ব্যবসার সুযোগও বাড়বে।

গত ৭ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রাম বন্দর থেকে প্রথমবারের মত ইউরেপের দেশ ইতালিতে সরাসরি জাহাজ চলাচল শুরু হয়।

সেই অভিজ্ঞতা ‘ভালো’ বলেই নতুন নতুন বন্দরের সঙ্গে সরাসরি জাহাজ চলাচল শুরু হচ্ছে বলে মন্তব্য করেন নজরুল ইসলাম।

বন্দর চেয়ারম্যান জানান, দক্ষিণ ইউরোপের আরেক দেশ পর্তুগালের লেইক্সজ বন্দর এবং মধ্যপ্রাচ্যের দুবাই বন্দর থেকেও চট্টগ্রাম বন্দরে সরাসরি কন্টেইনার জাহাজ চলাচলের বিষয়ে চট্টগ্রাম বন্দরের সঙ্গে আলোচনা চলছে। সব ঠিক থাকলে শিগগিরই সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হবে।

চট্টগ্রাম চেম্বারের সভাপতি মাহবুবুল আলম এ প্রসঙ্গে বলেন, রফতানি বাণিজ্যের প্রায় ৬০ শতাংশই হয় ইউরোপের দেশগুলোর সঙ্গে। ইউরোপ থেকে চট্টগ্রাম বন্দরে সরাসরি যাতায়াতকারী জাহাজের সংখ্যা বাড়লে সময় কমে সমুদ্রপথে পরিবহন ব্যয় অনেক সাশ্রয় হবে। দেশের প্রধান সমুদ্রবন্দর থেকে ইউরোপ ও আমেরিকার রুটে জাহাজ পরিচালনার সংখ্যা ক্রমান্বয়ে বাড়ানোর পাশাপশি মাদার ভেসেল ভেড়ানোর উপযুক্ত গভীর ও আধুনিক সমুদ্রবন্দর প্রতিষ্ঠার কাজও দ্রুত এগিয়ে নিতে হবে।

বাংলাদেশ জার্নাল/এমএস

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত