ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯ আপডেট : ৭ মিনিট আগে

গোপালগঞ্জে দুর্ঘটনাস্থলে গিয়ে যা বললেন সওজের প্রধান প্রকৌশলী

  গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি

প্রকাশ : ১৫ মে ২০২২, ১৯:০৩  
আপডেট :
 ১৫ মে ২০২২, ১৯:১৩

মহাসড়ক নিজের বাড়ির উঠান মনে করে ব্যবহার করা যাবে না
ছবি: প্রতিনিধি
গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি

সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী এ কে এম মনির হোসেন পাঠান বলেছেন, মহাসড়কে দুর্ঘটনায় প্রাণহানি কমাতে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে। অবৈধ স্থাপনা নির্মাণের প্রতিযোগীতা ও অবৈধ যানবাহন চলাচল বন্ধ করতে হবে। মহাসড়ক নিজের বাড়ির উঠান মনে করে ব্যবহার করা যাবে না।

রোববার দুপুরে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের কাশিয়ানী উপজেলার দক্ষিণ ফুকরায় শনিবার সড়ক দুর্ঘটনায় ৯ জন নিহত হওয়ার ঘটনাস্থল পরিদর্শনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, জাতীয় মহাসড়ক যান চলাচলের জন্য, অবৈধ যান চলাচল বা কারও ব্যক্তিগত কাজে ব্যবহারের জন্য নয়। আমরা সারা বছর মহাসড়কে অভিযান পরিচালনা করছি। গাছের গুঁড়ি, খড়কুটো, অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দিচ্ছি, অবৈধ যানবাহন অটোভ্যান, ইজিবাইক, নসিমন, ভটভটি চলাচলে বাধা প্রদান করছি। তারপরেও কেউই থামছে না।

মনির হোসেন পাঠান আরও বলেন, মানুষ যদি সচেতন না হয়, মহাসড়কে অবৈধ যানবাহন চলাচল বন্ধ না করে এবং গাছের গুঁড়ি, খড়কুটো, অবৈধ স্থাপনা করে মহাসড়ক নিজের সম্পত্তির মতো ব্যবহার থেকে বিরত না থাকে, তাহলে মহাসড়কে দুর্ঘটনা কমানো কোনোভাবেই সম্ভব হবে না।

এ সময় সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. রফিকুল ইসলাম, মো. মঈনুল হাসান, মো. রেজাউল করিম, গোপালগঞ্জ জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী সুরুজ মিয়া, গোপালগঞ্জ সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী জাহিদ হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন: ত্রিমুখী সংঘর্ষে তিন দম্পতিসহ ৯ জনের মৃত্যু

উল্লেখ্য, শনিবার গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে বাস-প্রাইভেটকার ও মোটরসাইকেলের মধ্যে ত্রিমুখী সংঘর্ষে পর্যন্ত ৯ জনের মৃত্যু হয়। এর মধ্যে তিন দম্পতি রয়েছেন। এছাড়া দুর্ঘটনায় আহত হয়েছে আরও ২৫ জন।

নিহতরা হলেন, ঢাকা বারডেম হাসপাতালের চিকিৎসক ও গোপালগঞ্জ শহরের বটতলা এলাকার প্রফুল্ল কুমার সাহার ছেলে বাসুদেব কুমার সাহা (৫২), তার স্ত্রী শিবানী সাহা (৪৮) ও ছেলে আহছানউল্লা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী স্বপ্নিল সাহা (১৯), বাসুদেব সাহার ব্যক্তিগত গাড়িচালক ঢাকার আদাবর থানার দোয়ারী এলাকার আ. রশিদ মিয়ার ছেলে আজিজ মিয়া (৪৪), কাশিয়ানীর ফুকরা ইউনিয়নের দক্ষিণ ফুকরা গ্রামের পেয়ার আলী মোল্লার ছেলে ফিরোজ মোল্লা (৪৮), তার স্ত্রী রুমা বেগম (৪০), একই গ্রামের জিন্দার ফকিরের ছেলে অনীক বাবু (২৮) ও তার নববিবাহিত স্ত্রী ইয়াসমিন আক্তার (১৯)।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত