ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯ আপডেট : ২৪ মিনিট আগে

পি কে হালদারের বিষয়ে ভারতকে চিঠি, এখনও আসেনি জবাব

  জার্নাল ডেস্ক

প্রকাশ : ১৬ মে ২০২২, ১৯:১৩  
আপডেট :
 ১৬ মে ২০২২, ১৯:১৯

পি কে হালদারের বিষয়ে ভারতকে চিঠি, এখনও আসেনি জবাব
জার্নাল ডেস্ক

পশ্চিমবঙ্গে গ্রেপ্তার প্রশান্ত কুমার হালদার ওরফে পি কে হালদারের বিষয়ে বিস্তারিত জানতে চেয়ে ভারতকে চিঠি দিয়েছে বাংলাদেশ।

সোমবার ইন্টারপোলের বাংলাদেশ শাখা এনসিবির সহকারী মহাপরিদর্শক (এআইজি) মহিউল ইসলাম গণমাধ্যমকে বলেন, পি কে হালদারের গ্রেপ্তারের খবর ভারত থেকে সমর্থিত বা অসমর্থিত ‘কোনোভাবেই’জানানো হয়নি।

তিনি বলেন,এনসিবি বাংলাদেশ নিজ উদ্যোগে এ বিষয়ে জানতে রোববারই ভারতের এনসিবিকে চিঠি দিয়েছে। আমরা পি কে হালদারের গ্রেপ্তারের খবরের কথা উল্লেখ করে তার বিভিন্ন বিষয়ে বিস্তারিত জানতে ভারতের এনসিবিকে চিঠি দিয়েছি। এখন পর্যন্ত চিঠির কোনো জবাব পাইনি। তাদের অনুষ্ঠানিক চিঠির অপেক্ষায় আছি।

এর আগে পি কে হালদার কানাডায় আছেন এমন খবর পাওয়া যায় উল্লেখ করে তিনি জানান, সে সময় কানাডাকেও চিঠি দেয়া হয় কিন্তু কোনো জবাব মেলেনি।

পি কে হালদারের বিষয়ে এনসিবি খোঁজ রাখছে জানিয়ে তিনি বলেন, শুধু এনসিবি নয় এই বিষয়ে সরকারে বিভিন্ন সংস্থা- মন্ত্রণালয় ওই দেশের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় বা সংস্থার সাথেও কাজ করছে।

এর আগে কয়েক হাজার কোটি টাকা আত্মসাৎ ও পাচারের অভিযোগ মাথায় নিয়ে বিদেশে পলাতক এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংক ও রিলায়েন্স ফাইন্যান্স লিমিটেডের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) প্রশান্ত কুমার হালদার (পি কে হালদার) ভারতের পশ্চিমবঙ্গে গ্রেপ্তার হয়।

পি কে হালদারের বিরুদ্ধে প্রায় তিন হাজার ৬০০ কোটি টাকা আত্মসাৎ ও পাচারের অভিযোগ রয়েছে। বেশ কিছু আর্থিক প্রতিষ্ঠানে দায়িত্ব পালনকালে এই অর্থপাচার করেছিলেন তিনি। তাকে গ্রেপ্তার করতে রেড অ্যালার্ট জারি করেছিল ইন্টারন্যাশনাল ক্রিমিনাল পুলিশ অর্গানাইজেশন (ইন্টারপোল)। তার বিরুদ্ধে দুদকসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান একাধিক মামলা করেছে।

২০১৯ সালের ২৩ অক্টোবর বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে সড়কপথে দেশত্যাগ করেন পিকে হালদার। এর আগের দিন পি কে হালদারের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে ডাকযোগে ইমিগ্রেশন পুলিশ বরাবরে চিঠি পাঠায় দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এই চিঠি ২৩ অক্টোবর বিকেল সাড়ে ৪টায় ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে পৌঁছায়।

নানা কৌশল করে এসব প্রতিষ্ঠান দখল করেছেন মূলত একজন ব্যক্তি। প্রতিষ্ঠান দখল করার জন্য নামে-বেনামে অসংখ্য কোম্পানি খুলেছেন, শেয়ারবাজার থেকে বিপুল পরিমাণ শেয়ার কিনেছেন, দখল করা আর্থিক প্রতিষ্ঠান।

আরও পড়ুন: হাই কোর্টে শুনানিতে আসছে পি কে হালদারকে ফেরানোর প্রশ্নে রুল

বাংলাদেশ জার্নাল/এমএম

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত