ঢাকা, সোমবার, ০৮ আগস্ট ২০২২, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯ আপডেট : ৫ মিনিট আগে

গোপালগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন

নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন লিটন, মাঠে থাকলো আর দুইজন

  গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি

প্রকাশ : ১২ জুন ২০২২, ২৩:০৪

নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন লিটন, মাঠে থাকলো আর দুইজন
সংবাদ সম্মেলন করে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন মেয়র প্রার্থী মুশফিকুর রহমান লিটন। ছবি- প্রতিনিধি
গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি

গোপালগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে শেষ মেয়র প্রার্থী হিসাবে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন মুশফিকুর রহমান লিটন। এই নিয়ে নির্বাচনের ১০ মেয়র প্রার্থীর মধ্যে ৮ জনই সড়ে দাঁড়ালেন।

বর্তমানে নির্বাচনের প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রইলেন আর মাত্র ২ জন। নারিকেল গাছ প্রতীক নিয়ে লড়বেন শেখ রকিব হোসেন ও হাতপাখা প্রতীকে মাঠে থাকবেন ইসলাম আন্দোলন বাংলাদেশের মো. দিদারুল ইসলাম।

রোববার (১০ জুন) রাতে শহরের মৌলভীপাড়ায় নিজ বাসবভনে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে মেয়র প্রার্থী শেখ রকিব হোসনকে সমর্থন দিয়ে নির্বাচন থেকে সরে যাওয়ার ঘোষনা দেন মুশফিকুর রহমান লিটন।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, গোপালগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন উন্মুক্ত করে দেয়ায় ১০জন প্রার্থী ভোট যুদ্ধে নামেন। তবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মেয়র প্রার্থী শেখ রকিব হোসনকে সমর্থন দিয়েছেন। তিনি তার হাত ধরে গোপালগঞ্জ পৌরসভার উন্নয়ন করতে চান। যে কারনে প্রধানমন্ত্রীর সম্মান রক্ষার্থে আজ থেকে আমি পৌর নির্বাচন থেকে আমি সরে দাঁড়ালাম এবং মেয়র প্রার্থী শেখ রকিব হোসেনকে সমর্থন দিলাম। এসময় মেয়র প্রার্থী শেখ রকিব হোসেনের প্রতীক নারিকেল গাছ মার্কায় ভোট দেয়ার জন্য তার কর্মী সমর্থকদের প্রতি আহ্বানও জানান তিনি।

এসময় প্রধানমন্ত্রীর চাচা শেখ কবির হোসেন, টুঙ্গিপাড়া পৌরসভার মেয়র শেখ তোজাম্মেল হক টুটুলসহ তার কর্মী সমর্থক এবং সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে গোপালগঞ্জ পৌর নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী শেখ রকিব হোসেনকে সমর্থন দিয়ে অপর মেয়র প্রার্থী মৃনাল কান্তি রায় চৌধুরী পপা, জি. এম সাহাব উদ্দিন আজম, রেজাউল হক সিকদার রাজু, দীলিপ কুমার সাহা দীপু, মো. আবুল ফত্তাহ সজু, এস. এম নজুরল ইসলাম নুতন ও কাজী লিয়াকত আলী লেকু নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ান।

নির্বাচনে অংশ নেয়া ১০ জন মেয়র প্রার্থীর মধ্যে ৮ জনই সরে যাওয়ায় নির্বাচনী মাঠে এখন দুই জন প্রার্থী প্রচারণায় রয়েছেন। এর মধ্যে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের দিদারুল ইসলাম রয়েছেন। উল্লেখ্য, আগামী ১৫ জুন গোপালগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসএস

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত