ঢাকা, বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ১৫ আষাঢ় ১৪২৯ আপডেট : ৫ মিনিট আগে

কারাগার থেকে পালিয়ে যাওয়া কয়েদি দুই বছর পর আটক

  গাজীপুর প্রতিনিধি

প্রকাশ : ২৩ জুন ২০২২, ১৩:৩৮

কারাগার থেকে পালিয়ে যাওয়া কয়েদি দুই বছর পর আটক
ছবি- প্রতিনিধি
গাজীপুর প্রতিনিধি

গাজীপুরের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ থেকে মই বেয়ে পালিয়ে যাওয়া যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত সেই কয়েদিকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শরীয়তপুর পদ্মা সেতু দক্ষিণ থানাধীন নাওডোবা মিনাকান্দি চৌরাস্তা এলাকা থেকে তাকে আটক করে পুলিশ।

আটক আবু বক্কর সিদ্দিক (৩৭)। তিনি সাতক্ষীরার শ্যামনগর থানার চণ্ডিপুর এলাকার মৃত কেছের আলীর ছেলে। হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত হয়ে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ এ বন্দি ছিলেন তিনি।

কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ এর জেল সুপার মো. আমিরুল ইসলাম জানান, ২০২০ সালের ৬ আগস্ট গাজীপুরের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ থেকে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত কয়েদি আবু বক্কর সিদ্দিক মই বেয়ে পালিয়ে যায়। হত্যা মামলায় তার মৃত্যুদণ্ড হয়। পরে আপিল করলে সাজা কমিয়ে তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়। ২০১২ সাল থেকে আবু বকর সিদ্দিক কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি ছিলেন।

শরীয়তপুর পদ্মা সেতুর দক্ষিণ থানার ওসি শেখ মো. মোস্তাফিজুর রহমান জানান, আগামী ২৫ জুন পদ্মা সেতু উদ্বোধন হচ্ছে। অনুষ্ঠানের নিরাপত্তা রক্ষায় পুলিশ এলাকায় ডিউটি দিচ্ছেন। শরীয়তপুরের পদ্মা সেতু দক্ষিণ থানাধীন নাওডোবা মিনাকান্দি চৌরাস্তা এলাকায় আবু বকর ঘুরাফেরা করছিল। এসময় তার চলাফেরা সন্দেহজনক হলে তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে কাশিমপুর কারাগার থেকে তার পলায়নের কথাটি বেরিয়ে আসে।

পরে আরও খোঁজ নিয়ে জানা যায় আবু বক্কর সিদ্দিক হত্যা মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামি। তিনি কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ থেকে ২০২০ সালে আগস্ট মাসে পালিয়ে এসেছে। পালানোর ঘটনায়ও তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়।

বুধবার (২২ জুন) আটকের পর দুপুরে আবু বক্কর সিদ্দিককে শরীয়তপুর আদালতের মাধ্যমে শরীয়তপুর জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২- এর সুপার মো. আমিরুল ইসলাম জানান, তখন ওই ঘটনায় কারাগারের দুই কর্মকর্তা ও চার কারারক্ষীর বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছিল।

বাংলাদেশ জার্নাল/ওএফ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত