গাজীপুরের গার্মেন্টস কারখানার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন

প্রকাশ : ০৫ জুলাই ২০২২, ২৩:১২ | অনলাইন সংস্করণ

  গাজীপুর প্রতিনিধি

ছবি: প্রতিনিধি

সাড়ে ১১ কোটি টাকা বিল বকেয়ার কারণে গাজীপুরে ৪টি পোশাক কারখানার গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার দুই মাস পর বিল পরিশোধ না করে আবারো এদের একটি কারখানায় অবৈধ সংযোগ দিলে ৪ জুলাই সেটিতেও তিতাস গ্যাসের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে কর্তৃপক্ষ।

তিতাস গ্যাস টি এন্ড ডি কোম্পানি লিমিটেডের জয়দেবপুর জোনাল বিপণন অফিসের ব্যবস্থাপক নৃপেন্দ্র নাথ বিশ্বাস জানান, সাড়ে ১১ কোটি বিল বকেয়া  থাকায় গত মে মাসে গিভেন্সি গ্রুপের ৪টি প্রতিষ্ঠান যথাক্রমে গাজীপুর সদর উপজেলার এলাকার হোতাপাড়া গার্মেন্টস লিমিটেড, মেসার্স মাসুমা খাতুন টেক্সটাইল লিমিটেড, মেসার্স জাহিন টেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড এবং মনিপুর এলাকার মেসার্স গিভেন্সি গার্মেন্টস লিমিটেড গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে।

গোপন তথ্যের ভিত্তিতে জানা যায়, গিভেন্সি গ্রুপের বিচ্ছিন্ন গ্রাহকের মধ্যে মেসার্স গিভেন্সি গার্মেন্টস লিমিটেড কর্তৃপক্ষ বাইপাস লাইনের মাধ্যমে অবৈধভাবে গ্যাস ব্যবহার করছে। পরে সোমবার (৪ জুলাই) তিতাস গ্যাসের আবিবি-গাজীপুরের জোবিঅ-জয়দেবপুর, ইএসএস গাজীপুর এবং মিটারিং এন্ড ভিজিল্যান্স টীম গ্রাহক আঙ্গিনা পরিদর্শন করে মেসার্স গিভেন্সি গার্মেন্টস লিমিটেডের ৩ ইঞ্চি সার্ভিস লাইন হতে ১ ইঞ্চি পাইপের মাধ্যমে ৪ ইঞ্চি হাউস লাইনের সাথে অবৈধভাবে সংযোগ করে ৬ টন ক্ষমতার ১টি বয়লারে গ্যাস ব্যবহার করার প্রমাণ পায়।

পরে তাৎক্ষণিকভাবে এ কারখানার গ্যাস সংযোগটি বিচ্ছিন্ন করে বাইপাস লাইনও অপসারণ করা হয়। মঙ্গলবার (৫ জুলাই) একই মালিকানাধীন অন্য তিনটি কারখানার অবৈধ সংযোগ পরীক্ষা করে দেখছে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ।

অভিযান পরিচালনাকালে তিতাস গ্যাস টি এন্ড ডি কোম্পানি লিমিটেডের প্রকৌশলী মো. আসাদুজ্জামান আজাদ, প্রকৌশলী কে. এইচ ফয়সাল আহম্মেদ, মো. রাসেল আহম্মেদ (মি. এন্ড ভি.) এবং উপ-সহকারী প্রকৌশলীবৃন্দ মো. মুজিবুর রহমান, মো. সাবিনুর রহমান, মো. ফেরদৌস হাসান (ইএসএস-গাজীপুর), অনিমেষ পাল, মো. জুয়েল রানাসহ টেকনিক্যাল টিম উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসএস