ঢাকা, সোমবার, ০৮ আগস্ট ২০২২, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯ আপডেট : ৫ মিনিট আগে

‘যৌক্তিক কারণ’ দেখালে মোটরসাইকেল আটকাবে না পুলিশ

  জার্নাল ডেস্ক

প্রকাশ : ০৭ জুলাই ২০২২, ০১:৪৯

‘যৌক্তিক কারণ’ দেখালে মোটরসাইকেল আটকাবে না পুলিশ
জার্নাল ডেস্ক

ঈদযাত্রায় মহাসড়কে যৌক্তিক কারণ দেখালে মোটরসাইকেল আটকাবে না পুলিশ। এমনকি নিজ পরিবারের সদস্যদের নিয়ে বাড়িও যেতে পারবেন মোটরসাইকেলচালক।

সংশ্লিষ্টদের মতে, ঢাকার আশপাশের জেলায় ১ থেকে ২ ঘণ্টার দূরত্বের পথ তারা চাইলে মোটরসাইকেলে যেতে পারেন। বেশি দূরত্বের যাত্রার ক্ষেত্রে যৌক্তিকতা দেখাতে পারবেন না চালকরা।

বুধবার পুলিশের ত্রৈমাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভায় মোটরসাইকেল চলাচলে বিধিনিষেধ নিয়ে আলোচনা হয়। এসময় একাধিক পুলিশ কর্মকর্তা এমন মতামত তুলে ধরেন।

এদিকে, বিআরটিএ মোটরসাইকেলে চলাচলে যে বিধিনিষেধ আরোপ করেছে, তাতে মানুষের মধ্যে ক্ষোভ তৈরি করতে পারে বলে মনে করছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। এ সিদ্ধান্ত বাস্তবসম্মত নয় বলেও মত বাহিনীর কর্মকর্তাদের। মোটরসাইকেল চালানো একজন মানুষের একান্তই ব্যক্তিগত অধিকার বলেও মনে করছেন তারা।

সভায় উপস্থিত একাধিক কর্মকর্তা জানান, বিপুলসংখ্যক মানুষ ঈদের সময় মোটরসাইকেল নিয়ে বাড়ি যান। পুলিশ কীভাবে তাদের ঠেকাবে? বাড়ি যাওয়ার যৌক্তিক কারণ দেখাতে পারলে পুলিশ মোটরসাইকেল চালকদের ছেড়ে দেবে।

পুলিশ কর্মকর্তারা মনে করছেন, ঈদের সময় প্রতিটি মোটরসাইকেল আটকে তার বাড়ি যাওয়ার কারণ জানা যৌক্তিক উপায় নয়। বার বার রাস্তা বন্ধ করে মোটরসাইকেল আটকালে দীর্ঘ যানজটের আশঙ্কা তৈরি হবে।

এদিকে আজ (বৃহস্পিতবার) থেকে ঢাকার প্রবেশমুখে অন্তত ৮টি চেকপোস্টে পুলিশ দায়িত্বপালন করবে। তবে প্রতিটি মোটরসাইকেল আটকে যাচাই করা পুলিশের একার পক্ষে করা সম্ভব নয় বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। তাদের মতে, বিআরটিএ’র ভ্রাম্যমাণ আদালত থাকলে পুলিশ সহায়তা করবে। বিআরটিএ’র ভ্রাম্যমাণ আদালত ছাড়া এটি প্রতিপালন পুলিশের জন্য চ্যালেঞ্জিং।

বাংলাদেশ জার্নাল/কেএ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত